আজব দুনিয়া

অবিশ্বাস্য হলেও সত্য, ধীরে ধীরে পাথরে পরিনত হচ্ছে এই শিশুটি

যখন নূর কুমারী ছেলেটির জন্ম দেয় তখন তার মধ্যে কোন অস্বাভাবিকতা সে দেখেনি, আর দশটা মায়ের মতই হাসিমুখে সন্তানকে কোলে নিয়ে বাড়ি আসে। কিন্তু ১৫ দিন পরেই দেখা যায় শিশুটির চামড়া শক্ত হয়ে খোসার মত পড়ে যাচ্ছে। আবার সেখানে দ্রুত শক্ত কালো চামড়া তৈরি হচ্ছে…তখন থেকেই শুরু হয় শিশুটির পাথরে পরিনত হওয়া।

সেই শিশুটি রামেশ ডর্জি, এখন বয়স ১১ বছর, যে কিনা বিরল ধরনের চর্মরোগে আক্রান্ত হয়ে পাথরে পরিনত হচ্ছে। যার ফলে ভীষণ চুলকানীসহ প্রতিনিয়ত যন্ত্রণাদায়ক ব্যথা এবং তার চামড়ার বর্হিঅংশ শক্ত পাথর হয়ে গেছে। বর্তমানে এই চর্মরোগের কারনে তার দৃষ্টিশক্তি ক্ষীণ, এমনকি কথাও ঠিকমত বলতে পারে না এবং পা’দুটো ভাজ হয়ে গেছে আর তাই একা চলাফেরা করতে পারে না। রামেশকে দেখতে এতই ভয়ঙ্কর লাগে যে অন্য শিশুরা তার সঙ্গে মিশে না, তাই তার কোন বন্ধু নেই।

রামেশ নেপালের এক প্রত্যন্ত এলাকায় একটি দরিদ্র পরিবারে জন্মেছে। তার এই রোগের চিকিৎসা অত্যান্ত ব্যয়বহুল। দীর্ঘদিনেও এই চর্মরোগ না সারাতে তার বাবা-মা আশা ছেড়েই দিয়েছিলেন। তবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রামেশের এই বিরল চর্মোরোগ সংক্রান্ত ভিডিও দেখে সাহায্যে এগিয়ে এসেছেন বৃটিশ গায়িকা জর্স স্টোন।

জানা গেছে কাঠমণ্ডু থেকেই তার চিকিৎসা শুরু হয়েছে। রামেশে এই ব্যয়বহুল চিকিৎসায় অনেকেই সাহায্যের হাত বাড়িয়েছেন।
[youtube https://www.youtube.com/watch?v=60ZAN3zVXZI]


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন