বিনোদনসাক্ষাৎকার

সাংবাদিক হিসেবে নিজেকে দেখতে চান শাওন রহমান, ছেড়ে দিলেন কোরিওগ্রাফির পেশা

এইতো কিছু দিন আগেই হয়ে গেল জাগো বাংলা সম্মাননা স্মারক অনুষ্ঠান। সেখানে জাতীয় পর্যায় বেষ্ট ক্যোরিওগ্রাফারের পুরষ্কারটি হাতে ওঠে চারুলতা কুঠিরের কর্ণধার শাওন রহমান। গতবছর ফ্যাশন সাংবাদিক তৌফিক অপুর হাত ধরে শাওন ও তার প্রতিষ্ঠানের যাত্রা শুরু হয়েছিল। খুব অল্প সময়ে মিডিয়ায় প্রতিষ্ঠান টি ব্যপক জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। ইতিমধ্যে ৪৫০ এর অধিক ছেলে-মেয়ে প্রতিষ্ঠানটির মাধ্যমে মডেল হিসেবে আত্তপ্রকাশ করেছে। প্রতিষ্ঠানটি কিছু সময়ের মধ্যে তিনটি নাটক, ১৮ টি ফ্যাশন শো, এবং বেশ আলোকিত প্রতিষ্ঠান গুলোর ইভেন এর কাজ সম্মানের সাথে করেছেন। এছাড়া উৎসব বেজ বিভিন্ন ফটোশুট জাতীয় পত্রিকার ম্যাগাজিন গুলাকে করেছে রংগিন, তারমধ্যে উল্লেখ্য ফ্যাশন হাউজগুলো হল- রঙ বাংলাদেশ, সাদাকালো, অঞ্জনস, কে কে- ক্রেফ্ট, নিপূণ, ডিমান্ড, টেক্স পয়েন্ট ইত্যাদি।

 

প্রতিষ্ঠানটি খুব অল্প সময়ে মিডিয়ায় যার জন্য ভাল ভাল কিছু কাজ উপহার দিয়েছে তিনি হলেন সময়ের সাহসী সাংবাদিক, কোরিওগ্রাফার, অর্গানাইজার, প্রযোজক চারুলতার কুঠিরের পরিচালক শাওন রহমান।

কোরিওগ্রাফি কাজ ছেড়ে দিচ্ছেন কেন তার কাছে জানতে চাইলে সে বলেন-

কিছুদিন আগের কথা -তখন ধুমচে মডেলেং করতাম, মডেল হিসেবে প্রায় হাজার খানেক নিউজ পেপারের ফ্যাশনের কাজ, বাংলাদেশের নামকরা ব্যান্ড গুলোর হাউজ কাজ করতে ছিলাম, সাথে ছিল কোরিওগ্রাফি করানো পেশা। তখন ২ টি পেশা এক সাথে ধরে রাখতে কষ্ট হচ্ছিল, বেছে নিলাম কোরিওগ্রাফি করানো। এভাবে ১ বছর চলছে, করে যাচ্ছি ১২ শত কোরিওগ্রাফি, ২৫ টি শো ১০ খানা প্রোগ্রাম করি আমি। কোরিওগ্রাফি করে বহুবার জাতীয় সম্মাননা পাই । কোরিওগ্রাফি সাথে চলছিল দেশের নাম করা প্রথম শ্রেণীর পত্রিকা জনকন্ঠ, ইত্তেফাক, ভোরের কাগজ, বাংলাদেশ সময়, দিনের শেষে ফ্যাশন ও লাইফস্টাইল বিষয়ে ফিচার ও রিপোর্টস এর কাজ। কিছুদিন হলো আমি ফ্যাশন এডিটর কর্মরত হোলাম। তাই

 

আজ আমি একটি পেশাতে নিজেকে দেখতে চাই, মায়ের স্বপ্ন – সাংবাদিকতা, আজ থেকে ফ্যাশন কোরিওগ্রাফি করানো কাজ ছেড়ে দিলাম এবং নিজেকে মনে প্রাণে একজন আদর্শ ফ্যাশন সাংবাদিক হিসেবে নিজেকে গড়ে তুলবো ইনশাআল্লাহ।

 

সব কিছুর মাঝে যখন ফ্যাশন আছে সংস্কৃতি আছে, আমার কষ্ট নেই। কারন দুই পেশাই অনেক সেনসিটিভ ও গুরুদায়িত্বপূর্ণ, এক সাথে ধরে রাখা কষ্টকর। তাই আজ আমার এ সিদ্ধান্ত।


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন