বিনোদন

শিল্পী সমিতিতে মিশা সওদাগর নিপুুণকে শপথ বাক্য পাঠ করান

বিনোদন ডেস্ক : বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির কার্যনিবার্হী পদে শপথ গ্রহণ করলেন অভিনেত্রী নিপুণ। এর আগে ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে গত ৩ জুলাই পদত্যাগ করেন জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা মৌসুমী। তারপর থেকেই তার সে পদটি শূন্যই ছিল।আজ বুধবার বিকেল ৫টায় শিল্পী সমিতির কার্যালয়ে সমিতির সভাপতি মিশা সওদাগর তাকে শপথ বাক্য পাঠ করান।গত ৫ মে জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা মৌসুমী বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির দ্বিবার্ষিক মেয়াদে (২০১৭-১৯) নির্বাচনে কার্যনির্বাহী পরিষদে ৩৪৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছিলেন। কিন্তু এরপর তিনি আর শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে অংশ নেননি। গত ৩ জুলাই বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সভাপতি মিশা সওদাগর বরাবর পাঠানো এক চিঠিতে মৌসুমী জানান, ব্যক্তিগত নানাবিধ সমস্যার কারণে তার ওপর অর্পিত দায়িত্ব তার পক্ষে পালন করা সম্ভব নয়। তাই তিনি বর্তমান কমিটি থেকে পদত্যাগ করছেন। যদিও সেসময় শিল্পী সমিতির পক্ষ থেকে তাকে বেশ কয়েকবার অনুরোধ করা হয়, পদত্যাগপত্র প্রত্যাহার করে নেওয়ার জন্য। কিন্তু মৌসুমী তার সিদ্বান্তে অটল থাকেন। পরবর্তীতে বর্তমান কার্যনির্বাহী কমিটির সর্বসম্মতিক্রমে ওই পদে নিপুণকে নির্বাচিত করা হয়।

সভাপতি মিশা সওদাগর বলেন, ‘আজ নিপুণ শপথ নিয়েছেন। নিপুণকে পেয়ে আমাদের কমিটি আরও বেশি শক্তিশালী হয়েছে। আমাদের পথ চলাটা আরও বেশি বেগবান হবে। আর আমরা অনেক চেষ্টা করেছি মৌসুমীকে ফিরিয়ে আনতে, কিন্তু শেষ পর্যন্ত তিনি আসতে রাজি না হওয়ায় আমরা এই শূন্য পদের জন্য নিপুণকে নিয়েছি।’

শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক নায়ক জায়েদ খান জানান, ‘আমরা চেষ্টা করেছি যাতে মৌসুমী আপা তার পদত্যাগপত্র প্রত্যাহার করেন। কিন্তু তিনি করেননি। আমরা চেয়েছিলাম তিনি যেন আমাদের ছেড়ে না যান। তিনি যেহেতু চলে গেছেন, সমিতির নিয়ম অনুযায়ী তার পদ কাউকে না কাউকে তো অন্তর্ভুক্ত করতেই হবে। তাই প্রথমে আমরা নিপুণকে চিঠির মাধ্যমে বিষয়টি জানাই। তিনি এর উত্তরও দেন। তারপর আমরা কমিটির সিদ্বান্ত অনুযায়ী এ পদের জন্য নির্বাচিত করি। আমরা মনে করি তিনি আমাদের সঙ্গে থাকলে আমাদের কমিটির কাজ আরও বেগবান হবে।’

নিপুণ বলেন, ‘আমি কখনও শিল্পী সমিতির রাজনীতিতে সক্রিয় ছিলাম না।‘আমাদের ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি একজন ব্যক্তি ও একটি প্রতিষ্ঠান গ্রাস করে নিচ্ছে। কোনো ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের কাছে যাতে পুরো ইন্ডাস্ট্রি চলে না যায় আমরা সে জায়গাটা নিয়ে কাজ করতে চাই।
তিনি আরও বলেন , নিয়ম না মেনে যৌথ প্রযোজনা হচ্ছে, এক নায়কতন্ত্রের কারণে ইন্ডাস্ট্রি ধ্বংস হওয়াসহ আরও অনেক কিছুই দেখছি, যা চলচ্চিত্রের জন্য মঙ্গলজনক কিছু নয়। এসব বিষয় ছাড়াও অন্যান্য বিষয় নিয়ে যেন কাজ করতে পারি, সেজন্যই আমি এবার শিল্পী সমিতির সঙ্গে যুক্ত হলাম।চলচ্চিত্রের উন্নয়নে কাজ করতে চাই।’আশা করছি ভালো কিছুই হবে।’

শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন চিত্রনায়ক রিয়াজ আহমেদ, ফেরদৌস আহমেদ, পপি, সাইমন, আলীরাজ, নাসরিন ও অঞ্জনাসহ আরও অনেকে।

 

দেশ রিপোর্ট / আর


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন