ধর্মসারাদেশ

সড়ক দুর্ঘটনা কেড়ে নিলো একজন প্রেরণাদায়ী বৌদ্ধ উপাসিকার প্রাণ

দেশ রির্পোট: দুর্ঘটনা একটি অদৃষ্টপূর্ব, অকল্পনীয় এবং আকস্মিক ঘটনা বা বিষয় যা প্রায়শ:ই অমনোযোগীতা কিংবা প্রয়োজন – অপ্রয়োজনের ফলে সৃষ্ট হয়ে থাকে। সচরাচর ক্ষেত্রে এটি প্রায়শ:ই ব্যক্তিকেন্দ্রিক, মানসিক কিংবা সামাজিক বিপর্যয় বয়ে নিয়ে আসে। গত রবিবার (০১-১০-২০১৭ ইং) সন্দ্ধ্যার সময় নন্দরকানন সংলঘ্ন সার্বজনীন বৌদ্ধ বিহারে বুদ্ধ প্রতিমূর্তির সম্মুখে প্রণাম জ্ঞাপনের উদ্দেশ্যে ফটোরাণী বড়ুয়া নামের এই শীলবান উপাসিকা রাস্তা পারাপারের সময় আকস্মিক সড়ক দুর্ঘটনার স্বীকার হয়। এতে তার মাথার মস্তিষ্কে প্রচন্ড রক্তক্ষরণ হয়। তৎক্ষণাৎ তাঁকে, চট্রগাম সরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। এমতাবস্থায়, রোগীর অবস্থার উন্নতি না হলে, বিশেষজ্ঞ ডাক্তারা তাঁকে আইসিইউ তে রাখার নির্দেশ প্রদান করেন। গতকাল রাতের ২ ঘটিকার সময় শ্রদ্ধাবান বৌদ্ধ উপাসিকা ফটোরাণী রড়ুয়া পরলোকগমণ করেন। তাঁর মৃত্যুতে তাঁর পরিবার-পরিজনসহ, প্রতিবেশী এবং স্বজনদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে আসে। তাঁর স্বামীর নাম, তেমির বড়ুয়া। তিনি পাঁচ কন্যা এবং এক পুত্র সন্তানের জননী। স্বর্গীয় দায়িকা ফটোরাণী বড়ুয়ার পৈত্রিক নিবাস এবং শ্বশুড় বাড়ি উভয়ই দক্ষিণ চট্রগামের আধুনগর থানা, চেঁদিরপুনি গ্রামেই অবস্থিত। তাঁর বোনন প্রিয়রমা বড়ুয়া’র মেজ পুত্র বান্দরবান পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জনাব দিলীপ বড়ুয়া বলেন- “আমার মাতৃসুলভ মাসীমা ছিলেন একজন শ্রদ্ধাবান দায়িকা। তাঁর এই আকস্মিক সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুতে আমরা গভীরভাবে শোকাহত। ” তিনি আরও বলেন, “প্রকৃতটক্ষে, ফিটনেসবিহীন যানচলাচল, চালকদের বেপোরোয়া মনোভাব ও আইন অমান্যের প্রবণতা বৃদ্ধির ফলেই অধিকাংশ সড়ক দুর্ঘটনা ঘটে । ” তিনি সড়ক দুর্ঘটনা হ্রাসের জন্য কঠোর সিদ্ধান্ত গ্রহণের কথাও বলেন।

বর্তমানে আমাদের দেশে সড়ক দুর্ঘটনায় মৃতের সংখ্যা আশঙ্কাজনকভাবে বেড়েই চলেছে। সুতরাং, সড়ক দুর্ঘটনা বন্ধে চাই একটি সমন্বিত উদ্যোগ এবং আইনের বাস্তবায়ন। পাশাপাশি গণসচেতনতা বৃদ্ধির কার্যক্রমও অব্যাহত রাখা দরকার।

 

জেড/আর


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন