ধর্মলাইফষ্টাইলসারাদেশ

“ত্রিবেদী’ র মনোমুগ্ধকর আলপনা উৎসব” – অভিভূত জনগণ

মুনমুন বড়ুয়া চৌধুরী : বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম বড় ধর্মীয় উৎসব প্রবারণা পূর্ণিমা গত বৃহস্পতিবার (৫ অক্টোবর) পালিত হয়েছে যথাযথ সম্মানের সাথে। চট্রগ্রামের একদল তরুনের বৌদ্ধ সংগঠন “ত্রিবেদী” আয়োজিত আলপনা উৎসব এক জমকালো মনোরম পরিবেশের সৃষ্টি করেছে। নন্দনকানন বৌদ্ধ বিহারের সম্মুখে চৌমুহনীতে এই প্রথমবারের মতন সাড়ে ১২ হাজার বর্গ ফুট জুড়ে ব্যতিক্রমী এই আলপনার আয়োজন করেছে। বৌদ্ধ যুব সংগঠন “ত্রিবেদী ” সমগ্র বাংলাদেশ জুড়ে এই প্রথম প্রবারণা উপলক্ষে আলপনর উৎসবের অনিন্দ্য সুন্দর প্রয়াস নিয়েছে। এজন্য, “ত্রিবেদী ” সমগ্র বৌদ্ধ তথা দেশবাসীর পক্ষ থেকে ধন্যবাদ পাওয়ার দাবী রাখে।

এই সংগঠনের সিনিয়র সদস্য অমিত বড়ুয়া বলেন, ” প্রতিবছর ফানুস উত্তোলনের মাধ্যমে আমরা প্রবারণা পূর্ণিমা পালন করে থাকি। আমরা ভিক্ষু মহা সভার সাথে একাত্নতা ঘোষণা করে এটা আয়োজন করিনি। আমরা তার প্রতিবাদ করেই ভিন্ন কিছু আয়োজন করতে চেয়েছি যেটা সাড়া ফেলবে সবার মাঝে।”
প্রতক্ষ্যদর্শী এডভোকেট জয়দত্ত বড়ুয়া জানান, “ত্রিবেদী’র মনোমুগ্ধকর আলপনা উৎসব বৌদ্ধদের জন্য সত্যিই অতুলনীয়। ”

এই আলপনা উৎসবের উদ্বোধন করেন, চট্রগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের সম্মানিত ডেপুটি কমিশনার (দক্ষিণ) জনাব এস. এম. মোস্তাইন হোসেন। তাছাড়া, এই আলপনা উৎসব আয়োজনে সবার্থক সহযোগীতা করেন, অত্র এলাকার মাননীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রকৌশলী শৈবাল দাস সুমন, এক মুঠো বৌদ্ধ তরুনের পৃষ্ঠপোষক প্রকৌশলী পুলক কান্তি বড়ুয়া এবং ছাত্র নেতা মিথুন বড়ুয়াসহ এলাকার জনগণ। আগামীতে বৌদ্ধ পার্বণ নিয়ে আরও বৃহৎ পরিসরে দৃষ্টি নন্দন এ আয়োজন করবেন এমন প্রত্যাশা আপামর জনগণের।

 

জেড/আর


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন