লাইফষ্টাইল

কোন রাশির ভ্যালেন্টাইন ডে কেমন কাটবে?

ভালোবাসার সময়কে কেবল একটি দিনে বেঁধে রাখা যায় না। তারপরও ভ্যালেন্টাইন্স ডে নিয়ে বিশ্বজুড়ে উন্মাদনার শেষ নেই। শুধু প্রেমিক-প্রেমিকা নন, সিঙ্গেলরাও দিনটি নিয়ে অনেক উৎসাহী থাকেন। ভালোবাসার দিনটি নিয়ে তাদেরও থাকে নানা পরিকল্পনা। কেননা এই ভ্যালেন্টাইন্স ডে -তে প্রেম জুটতে পারে তাদের ভাগ্যেও। যাহোক, প্রেম দিবসে কাদের ভাগ্যের শিকল খুলছে, তা জেনে নিন রাশির বিচারে। এ ক্ষেত্রে জ্যোতিষশাস্ত্রের আলোকে ‘টাইমস অব ইন্ডিয়া’ অবলম্বনে জেনে নিন কোন রাশির ভ্যালেন্টাইন ডে কেমন কাটবে-

মেষ রাশি আপনি যদি মেষরাশির কোন জাতক/জাতিকার সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে থাকেন তাহলে ভালোবাসা দিবসে দু:সাহসিক কোনো পরিকল্পনা করতেই পারেন। এ জন্য বিশেষ দিনটিতে আপনারা কাছাকাছি কোনো রিসোর্ট কিংবা পাহাড়ে বেড়াতে যেতে পারেন। চাইলে দেশের বাইরেও প্রিয় কোনো স্থানে যেতে পারেন। পাহাড়ে খোলা আকাশের নিচে একে অপরের হাত ধরে রাখলে দেখবেন ভালোবাসা অনেক জমে উঠবে। বৃষ রাশি এই রাশির জাতক/জাতিকাদের সব কিছু একদম নিখুঁত হওয়া চাই-ই চাই। তারা সবকিছুর ওপরে ভালোবাসাকে প্রাধান্য দিয়ে থাকে। কাজেই আপনার সঙ্গী যদি বৃষ রাশির হয়ে থাকেন তাহলে আর দেরি নয়। ভালোবাসার দিনে তাকে উপহার দিন একগুচ্ছ লাল গোলাপ। এতে তার মুখে হাসি ফুটে উঠবে। চাইলে তাকে নিয়ে কোনো রেস্টুরেন্টে যেতে পারেন কিংবা তাকে দিতে পারেন দামি কোনো উপহার। মিথুন রাশি মিথুন রাশির জাতক/জাতিকারা অনেক চতুর হন। তারা সাধারণত বুদ্ধিজীবী টাইপের হয়ে থাকেন। তাই চিন্তা না করেই ভালোবাসার দিনে শোয়ার ঘরে বসেই তাকে নিয়ে কোনো বই পড়ুন। দেখবেন, এ কাজেই সে আহ্লাদে আটখানা। কর্কট রাশি কোলাহলপূর্ণ কোনো জায়গা বিশেষ করে রেস্টুরেন্ট, রিসোর্ট কিংবা মলে যেতে পছন্দ করেন না কর্কট রাশির জাতক-জাতিকারা। এর চেয়ে বরং তারা ঘরে বসেই নির্জন মনোরম পরিবেশে সঙ্গীর সঙ্গে পার্টি করতে পছন্দ করেন। ভালোবাসার দিনে তারা সঙ্গীর প্রিয় খাবার রান্না করেন। এ ছাড়া একসঙ্গে টিভি দেখা এবং গল্পগুজব করতে তারা ভালোবাসেন। সিংহ রাশি নেতৃত্বের গুণাবলি এবং অহ‍ংকারী হওয়ার কারণে সিংহ রাশির জাতক/জাতিকারা সকলের কাছে সুপরিচিত। এরা প্ল্যান করে সব কাজ করতে পছন্দ করেন। ভালোবাসার দিনে এ রাশির জাতক/জাতিকারা সঙ্গীকে ফুল, কার্ড, চকলেট প্রভৃতি নানা উপহার দিতে পারেন। এ ছাড়া দিন শেষে বড় উদযাপন তো আছেই! কন্যা রাশি আপনার সঙ্গী যদি কন্যা রাশির জাতক/জাতিকা হয়ে থাকেন তাহলে আপনি ভাগ্যবান। এরা ছোটখাট যে বিষয়ে  অনেক খুশি হয়। ভালোবাসার দিনে সঙ্গীকে নিয়ে কোনো রিসোর্ট থেকে ঘুরে আসতে পারেন। চাইলে বনভোজনের আয়োজনও করতে পারেন। তুলা রাশি এ রাশির জাতক/জাতিকাদের আবেগ অনেক বেশি। তারা প্রাকৃতিকভাবেই অনেক নরম মনের হয়ে থাকেন। ভালোবাসার দিনে তাদের দর্শনীয় কোনো স্থানে বেড়াতে নিয়ে যান। দেখবেন, সঙ্গীর মন কত সহজেই জয় করে ফেলেছেন। বৃশ্চিক রাশি আপনার সঙ্গী যদি বৃশ্চিক রাশির হয়ে থাকেন তাহলে তাকে অবাক করে দেওয়া কিছু কাজ করতেই পারেন। এটা হতে পারে মোমবাতি জ্বালিয়ে একসঙ্গে রাতের খাবার খাওয়া কিংবা নিজের মতো করে একসঙ্গে কিছুটা সময় কাটানো। এতে ভালোবাসার দিনটা আনন্দেই কাটবে। ধনু রাশি রোমাঞ্চকর প্রিয় হয়ে থাকেন এই রাশির জাতক/জাতিকারা। তাই ভালোবাসার দিনে তাদের নিয়ে দূরে কোথাও বেড়াতে যান। তাতে দিনটা আনন্দেই কাটবে। মকর রাশি এরা একটু অন্তর্মুখী স্বভাবের হয়ে থাকে। তারা স্বাভাবিকভাবেই সব কাজ করতে পছন্দ করেন। তাই তাকে অবাক করে কোনো কাজ না করলেও চলবে। এ ক্ষেত্রে তাকে খুশি করার জন্য বাড়িতেই কোনো আয়োজন করতে পারেন। চাইলে সঙ্গীকে নিয়ে প্রিয় কোনো জায়গায়ও বেড়াতে যেতে পারেন। আবার তার মন জয় করার জন্য উপহারও দিতে পারেন। কুম্ভ রাশি এ রাশির জাতক/জাতিকারা মজা করতে অনেক ভালোবাসেন। সুন্দর গান শুনে এবং পছন্দমতো খাওয়া দাওয়া করে তারা দিনটি উদযাপন করতে বেশি পছন্দ করেন। মীন রাশি অনেক রোমান্টিক মনের হয়ে থাকেন মীন রাশির জাতক/জাতিকারা। তাই তাদের নিয়ে ভালোবাসার দিনে রোমান্টিক কোনো পরিবেশে চলে যান। কোথাও যেতে না চাইলে বাড়িতেই তার পছন্দের গান বাজিয়ে তাকে তার পছন্দের রান্না করে খাওয়ান। এতেও ভালোবাসার দিনটি আনন্দে কাটবে।


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন