বিনোদন

দর্শক টানছে ‘ভালো থেকো’

বিনোদন প্রতিবেদক: গেলো শুক্রবার সারাদেশের নব্বইটির মতো সিনেমা হলে মুক্তি পেয়েছে জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত ‘ভালো থেকো’। গেলো তিন সপ্তাহে হলে কোন দেশিয় ছবি মুক্তি পেতে দেখা যায় নি। এরই মধ্যে এই শুক্রবারে মুক্তি পায় দেশিয় এই ছবিটি। দেশিয় ছবির প্রতি দর্শকদের টান সবসময়ই লক্ষ করা যাচ্ছে। বর্তমানে দেশিয় ছবি ভালো হচ্ছে আর দর্শকরাও হলমুখী হচ্ছে। কেমন যাচ্ছে সিনেমাটি?— এ নিয়ে জানালেন চিত্রনায়িকা তানহা তাসনিয়া।

তিনি বলেন, ‘দেশের রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে শুক্রবার ঢাকা শহরে মানুষ খুব কম বের হয়েছিল। তাই সকালে দর্শক কম ছিল হলগুলোতে। তবে ঢাকার মধ্যে বিকেল ৩টার শোতে তা কাটিয়ে উঠেছে।’ ছবির প্রযোজক অভি বলেন, “ঢাকার বাইরে জেলা শহরের হল মালিকদের অনেকের সাথে কথা হয়েছে। তারা বলেছেন ‘ভালো থেকো’ হতাশ করেনি। তাছাড়া দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে দর্শকের ভালো রেসপন্স পাচ্ছি ছবিটি নিয়ে।” রাজনৈতিক পরিস্হিতির কারণে প্রথম দিকে তেমন দর্শক না পেলেও এখন দর্শক টানছে ছবিটি। মধুমিতাসহ বেশ কয়েকটি হল হাউসফুল যাচ্ছে। দর্শক সমাগম ও হচ্ছে বেশ ভালো। দর্শক প্রতিক্রিয়ায় জানা যায়, আমরা যারা মুভিখোর তারা প্রায় সবাই জানি মালায়লাম মুভি সম্পর্কে। ওরা অনেক সুন্দর করে জীবনের গল্পগুলো বলে যায়।

“ভালো থেকো”ও তেমনই একটি ছবি। কোনকিছুতেই বাড়াবাড়ি করা হয়নি। একই সাথে রয়েছে সামাজিক, পারিপার্শ্বিক, ভালবাসা আর মানবতার গল্প। স্পয়লার দিলে দেখার আগ্রহ নষ্ট হতে পারে। সত্যি কথা বলতে এমন মুভি হলে না দেখলে বাঙালী সংস্কৃতিকে অবজ্ঞা করা হবে। ভাববেন না বাংলাদেশের মুভি বলে বাড়িয়ে বলছি।হলে দেখেই কথার সত্যতার প্রমাণ পাবেন। ও হ্যা, শুভর অভিনয়ের প্রশংসায় করতে ভুলে গেছিলাম।আর তানহার অভিনয়ও পরিণত ছিল।

‘ভালো থেকো’র মূল তিনটি চরিত্রে আছেন আরিফিন শুভ, আসিফ ইমরোজ ও তানহা তাসনিয়া। এছাড়া অরুনা বিশ্বাস, কাজী হায়াত ও আমজাদ হোসেন’সহ অনেকে অভিনয় করেছেন। সিনেমাটি প্রযোজনা করেছে দ্য অভি কথাচিত্র।

 

জি/সু


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন