প্রধান সংবাদসারাবিশ্ব

সিরিয়ায় অস্ত্রবিরতি নিয়ে নাগরিকদের ‘উপহাস’

সিরিয়ার পূর্ব গৌতার বাসিন্দারা কথিত অস্ত্রবিরতি নিয়ে ‘উপহাস’ করেছেন। কারণ এই অঞ্চলে অস্ত্রবিরতির মধ্যেও বোমা হামলা অব্যাহত রেখেছে রুশ ও সিরীয় বাহিনী। স্থানীয় চিকিৎসক ও মানবাধিকার কর্মীদের বরাত দিয়ে বৃহস্পতিবার এ খবর প্রকাশ করেছে আল জাজিরা।

ডুমা শহরের মানবাধিকার কর্মী আব্দেলমালিক আবৌদ জানান, রাজধানী দামেস্কের উপকণ্ঠে অবস্থিত পূর্ব গৌতার বিভিন্ন শহরে আজও বোমা হামলা করা হয়েছে। এতে একজন শিশুসহ পাঁচজন বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস এবং স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ফায়েজ ওরাবি নিহতের সংখ্যা নিশ্চিত করেছেন।

আব্দেলমালিক আবৌদ বলেন, ‘পূর্ব গৌতায় অবস্থানরত বেসামরিক নাগরিকদের নিরাপদ স্থানে সরে যেতে ‘মানবিক করিডর’দেয়ার খবর নিয়ে উপহাস করছেন এখানকার বাসিন্দারা। কারণ তারা এক মুহূর্তের জন্য অস্ত্রবিরতি বিষয়টি বিশ্বাস করেনি। এই অঞ্চলে সিরিয়া সরকার পুরোপুরি জনগণের বিশ্বাসযোগ্যতা হারিয়েছে। সরকার ও রুশ বাহিনী বোমা হামলা অব্যাহত রেখেছে। রাশিয়া বা সিরিয়া সরকার কেউই যুদ্ধ থেকে বেসামরিক নাগরিকদের দূরে রাখার বিষয়ে কোনো মাথাব্যথা নেই।’

গত কয়েকদিনে পূর্ব গৌতায় বেশ কয়েকটি অস্ত্রবিরতির প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে।

বিদ্রোহীদের নিয়ন্ত্রণে থাকা গৌতার নিয়ন্ত্রণ নিতে এক সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে সেখানে ভয়াবহ হামলা চালিয়ে যাচ্ছে সিরিয়ার সরকারি বাহিনী। এই বাহিনীকে সহায়তা দিচ্ছে রাশিয়া। চলমান হামলায় গত সপ্তাহে সাড়ে পাঁচ শতাধিক মানুষ নিহত হয়েছে। এই সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে গত শনিবার ৩০ দিনের যুদ্ধবিরতির একটি প্রস্তাব পাস হলেও হামলা চলছে।

বেসামরিক নাগরিকদের নিরাপদ স্থানে সরে যেতে গত মঙ্গলবার থেকে দিনে পাঁচ ঘণ্টা হামলা বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছিলেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। কিন্তু এটি কার্যকর হয়নি।


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন