প্রবাসসারাবিশ্ব

পানিতে নামলো চীনের প্রথম নিজস্ব বিমানবাহী জাহাজ

দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর অবশেষে পানিতে নামলো চীনের নিজস্ব প্রযুক্তিতে তৈরি বিমানবাহী জাহাজ। চীন ইতোমধ্যে পরীক্ষামূলকভাবে সমুদ্রে জাহাজটির কার্যক্রম চালিয়েছে। বলা হচ্ছে, জাহাজটি নামানোর মধ্য দিয়ে চীন দেশটির অভ্যন্তরীণ অস্ত্রশিল্পের ক্রমবর্ধমান নৈপুণ্য বিশ্ব দরবারে তুলে ধরলো।

জাহাজটির পরীক্ষা চালানোর পর এক বিবৃতিতে চীনের প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘স্থানীয় সময় আজ রোববার সকাল ৭টায় জাহাজটিকে তীরে ভেড়ানো হয়েছে। ৫০ টন ক্ষমতাসম্পন্ন জাহাজটি ২০২০ সালের মধ্যে সম্পূর্ণভাবে সমুদ্রে কাজ করতে পারবে বলে আশা করছি।’

জানা গেছে, জাহাজটি সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের কুজনেৎসভের ক্লাস ডিজাইনের ওপর ভিত্তি করে বানানো হয়েছে। এদিকে জাহাজের মোট সংখ্যার দিক দিয়ে বিশ্বের বৃহত্তর নৌবাহিনী চীনে। তবে প্রযুক্তি ও যুদ্ধ সক্ষমতার দিক দিয়ে দেশটি যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার চাইতে অনেকটাই পিছিয়ে রয়েছে।

চীনের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম বলছে, চীনের এই অত্যাধুনিক জাহাজ নির্মাণের মধ্য দিয়ে তাদের ৭০ বছরের স্বপ্ন পূরণ হয়েছে। অবশ্য এটি চীনের দ্বিতীয় বিমানবাহী জাহাজ। ২০১২ সালে তাদের প্রথম বিমানবাহী জাহাজটি আলোর মুখ দেখেছিল। তবে নতুন এই জাহাজটি সবচাইতে উন্নতমানের প্রযুক্তি দিয়ে তৈরি করা হয়েছে। সেই হিসেবে চীন এটিকে তাদের প্রথম সাফল্য বলছে। আগামীতে দেশটি দীর্ঘদিন সমুদ্রে থাকতে পারবে এমন পারমাণবিক ক্ষমতাসম্পন্ন বিমানবাহী জাহাজ তৈরির পরিকল্পনা করছে।


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন