খেলা

বিশ্বকাপ শুরু তাই বন্ধ পতিতালয়

খেলোয়াড়দের পারফরম্যান্সে যাতে প্রভাব না পড়ে সেজন্য দলগুলো আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট শুরুর আগে স্ত্রী, বান্ধবী বা যৌনসঙ্গীর কাছ থেকে দূরে থাকতে কড়া নির্দেশ দিয়ে রাখে। উল্টো ঘটনাও ঘটে। মন ভালো রাখতে যৌনতার বৈধতাও দেওয়ার নজির আছে। তবে এবার সমর্থকদের অবাধ যৌনতা ঠেকাতে পতিতালয় বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাশিয়ার পুলিশ। দেশটির ১১টি শহরে এবার বিশ্বকাপের আসর বসছে। ইতিমধ্যে এসব শহরের অনেকগুলো পতিতালয় বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

বিশ্বকাপের উন্মাদনা শুরু হয়েছে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ফুটবলভক্তের আনাগোন এখন রাশিয়ায়। বিশ্বকাপ উপলক্ষ্যে জমজমাট ব্যবসার আশা করেছিলেন রাশিয়ার পতিতালয়গুলো। তবে তাদের আশা গুঁড়েবালি দিল দেশটির পুলিশ। সমর্থকদের অবাধ যৌনতা বন্ধ করা হয়েছে বেশ কিছু পতিতালয়। বাকিগুলোকেও বন্ধের নোটিশ দেওয়া হয়েছে।

রাশিয়ার নামিদামি পতিতালয় ‘সিলভার রোজ’র একজন পতিতা ইরিনা মাসলোভা বলেন, ‘পুলিশের সতর্কবাণীর কারণে কাজ করাটা কঠিন হয়ে পড়েছে। বেশিরভাগ পতিতালয়ই বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এখনো অনেকে ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন তবে সেটা নিজের ঝুঁকিতে’।

লুসি নামে একজন নর্তকী এএফপিকে বলেন, ‘পতিতালয় বন্ধ হয়ে যাওয়ায় আমাদের আয়ে প্রভাব পড়েছে। আগে একজন নর্তকী মাসে পাঁচ থেকে দশ হাজার মার্কিন ডলার আয় করতেন এখন সেটা দুই-পাঁচ হাজারে নেমে এসেছে। এটা সত্যিকার অর্থেই দারুণ লোকসান।’

এবারের বিশ্বকাপে সেক্স ডলের বেশ কাটতি যাবে বলে মনে করছেন দেশটিতে সেক্স হোটেল চালু করা দিমিত্রি আলেক্সারভ। তিনি বলেন, ‘বেশিরভাগ মানুষই তাদের সঙ্গী ছাড়া আসছেন। তাদের জন্য ভালো উপায় হতে পারে সেক্স ডল।’ সেক্স ডলের সঙ্গে সময় কাটাতে ঘন্টায় ৮০ ডলার গুণতে হবে জানান তিনি।

এর আগে এবারের বিশ্বকাপে যৌনতা কেলেঙ্কারিতে পড়েছিল মেক্সিকো জাতীয় দল। বিশ্বকাপ স্কোয়াডে থাকা নয় সদস্য যৌনকর্মীদের ভাড়া করে রাতভর পার্টি আয়োজন করে। দেশটির মেক্সিকো সিটি শহরের একটি ব্যক্তি মালিকানাধীন কম্পাউন্ডের সেই পার্টিতে ৩০ জন যৌনকর্মী ছিলেন।


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন