সারাদেশ

কলাপাড়ার ১২ টি ইউনিয়নের ১১৯ দরিদ্র পরিবার ঘর পাচ্ছেন

মোঃহাসানুজ্জামান (অমি গাজী)কলাপাড়া পটুয়াখালী,প্রতিনিধি।। 
“যার জমি আছে ঘর নেই তার জমিতে গৃহ নির্মাণ” উপ-খাতের আওতায় কলাপাড়া উপজেলার ১২ টি ইউনিয়নের মোট ১১৯ দরিদ্র পরিবার ঘর পাচ্ছেন।প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে এসব পরিবারকে ২০১৭-১৮ অর্থ বছরে আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের অধীন গৃহ নির্মাণ ব্যয়ের জন্য কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসারের অনুকূলে এক কোটি ১৯ লাখ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।
ইতিমধ্যে ১১৯ পরিবারের তালিকা সম্পন্ন করা হয়েছে। অনুমোদিত তালিকায় চাকামইয়া ইউনিয়নে ১০টি, টিয়াখালীতে ১০টি, লালুয়ায় ১০টি, মিঠাগঞ্জে ১০টি, নীলগঞ্জে ১০টি, মহিপুরে ১০টি, লতাচাপলী ১০টি, ধানখালী ১০টি, ধূলাসারে ১০টি, বালিয়াতলী ১০টি, ডালবুগঞ্জে নয়টি এবং চম্পাপুরে ১০টি পরিবার গৃহপুনর্বাসন সুবিধা পাচ্ছেন।
 প্রত্যেকটি ঘর নির্মাণ ব্যয় রয়েছে এক লাখ টাকা। সরকারি নির্দেশনা রয়েছে এক থেকে ১০ শতক জমি আছে, কিন্তু ঘর নেই বা ঘর থাকলেও বসবাস উপযোগী নয় তারা এই তলিকায় অন্তর্ভূক্ত হবেন।
 তবে এই গৃহপুনর্বাসনের নামে গরিব মানুষের সঙ্গে প্রতারণার অভিযোগও পাওয়া গেছে। ইতিমধ্যে লালুয়ার এক চৌকিদার পুনর্বাসনের চাঁদাবাজি করতে গিয়ে গণরোষের শিকার হয়েছেন। কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ তানভীর রহমান সাংবাদিকদের জানান, এই প্রকল্পের গৃহনির্মাণ কাজ চলমান রয়েছে।
তবে পর্যায়ক্রমে বাকিসব গৃহহারা পরিবারকে এই প্রকল্পের মাধ্যমে পুনর্বাসন করা হবে বলে সরকারি সুত্রে জানা গেছে।
দেশরির্পোট/এনায়েত


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন