খেলা

পদত্যাগ করছেন না সাম্পাওলি!

প্রতি ম্যাচে ফরমেশন বদলায় আর্জেন্টিনা। লিওনেল মেসির অবস্থানেও আসে রদবদল। তার পরও খুব বেশিদূর যাওয়া হলো না। নকআউট পর্বে ফ্রান্সের কাছে হেরে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নিতে হয়েছে আর্জেন্টিনাকে। গ্রুপ পর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে বল পেলেও কাজে লাগাতে পারেননি মেসি। মিস করেন দারুণ একটি পেনাল্টি। এরপর ক্রোয়েশিয়ার কাছে বাজেভাবে হার। সে ম্যাচে পুরোই নিষ্প্রভ দেখা যায় পাঁচবারের বর্ষসেরা এই তারকাকে। যদিও বাঁচা-মরার লড়াইয়ে নাইজেরিয়ার বিপক্ষে গোলের দেখা পান মেসি। কিন্তু নকআউট পর্বে আবারও সেই পুরনো রূপ। অবশ্য দুটি গোলে অবদান রেখেছেন। তাতে কি আর মন ভরে সমর্থকদের। কারণ দলের প্রাণভোমরার কাছে প্রত্যাশা যে অনেক বেশি। সে অনুযায়ী তিনি দিতে পেরেছেন? প্রশ্ন ওঠা অস্বাভাবিক নয়। গত শনিবার ফ্রান্সের কাছে হারার পর এমন প্রশ্নের বাণে পড়েছেন আর্জেন্টিনার কোচ হোর্হে সাম্পাওলি।

মেসির নিষ্ফ্ক্রিয়তা নিয়ে তার কোনো অভিযোগ নেই। বরং স্বীকার করেছেন লিওর মতো বিশ্বের অন্যতম সেরা ফুটবলারকে তার যথাযথ ব্যবহার করতে পারেননি, ‘মেসি নিঃসন্দেহে বিশ্বের অন্যতম সেরা একজন খেলোয়াড়। তার মতো ফুটবলাররা আমাদের দলে ছিল, অথচ আমরা তার যথার্থ ব্যবহার করতে পারলাম না। আমাদের উচিত ছিল সবাই মিলে মেসিকে সাহায্য করা। তার অনুকূলে পরিস্থিতি তৈরি করা। তার কথা মাথায় রেখেই বিভিন্ন কৌশল প্রয়োগ করেছি। তাকে ঘিরে খেলা। তার জন্য জায়গা বের করা, অনেক সময় সে যা করতে চেয়েছে সেটাই করার চেষ্টা করেছি। অবশ্য বেশিরভাগ সময় সেটা হয়ে ওঠেনি। মাথায় থাকলেও মাঠে প্রয়োগ করতে পারিনি।’ যদিও ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে হারের পর মেসির সঙ্গে কোচের দূরত্ব বেড়েছে বলে গুঞ্জন উঠেছিল। ম্যাচের পর এ নিয়ে মুখ খোলেননি সাম্পাওলি। এদিকে এখনই চাকরি ছাড়তে চান না তিনি।

থেকে যেতে চান। কাজ করতে চান আর্জেন্টিনার হয়ে, ‘এমন জায়গা থেকে বাদ পড়া সত্যিই কষ্টের। তার পরও আমি পুরোপুরি হতাশ নই। আমি যেখানে আছি আর যেখানে যাওয়ার ক্ষমতা রাখি, তার পরিপ্রেক্ষিতে আমি আর্জেন্টিনার কোচের পদ থেকে সরে দাঁড়াতে চাই না।’ তবে নিজের বিশ্বকাপ ভাবনাটা জয়ের অনুকূলে ছিল না মনে করছেন সাম্পাওলি, ‘আমরা যা চেয়েছি হয়নি। জেতার জন্যই মাঠে নেমেছিলাম। বিভিন্ন ফর্মুলাও যাচাই করেছি। হয়তো আমাদের সেসব ভাবনা বিশ্বকাপ জয়ের উপযুক্ত ছিল না।’

 

 

দেশরির্পোট/আরাফাত

 


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন