সারাবিশ্ব

পাকিস্তানে নির্বাচনী সভায় বোমা হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৮৫

পাকিস্তানে বেলুচিস্তান আওয়ামী পার্টি (বিএপি)-এর এক নির্বাচনী সভায় বোমা হামলার ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৮৫ জনে দাঁড়িয়েছে। আহত হয়েছেন অন্তত ১৫০ জন। নিহতদের মধ্যে দলের নেতা ও আসন্ন সাধারণ নির্বাচনের প্রার্থী নওয়াবজাদা সিরাজ রাইসানীও আছেন।

বেলুচিস্তানের মাস্টাং জেলায় নির্বাচনী প্রচারণায় মঞ্চের খুব কাছে এই বোমা হামলা হয়। এতে আগের প্রকাশিত খবরে ২৫ জন নিহত ও শতাধিক আহতের তথ্য পাওয়া গিয়েছিল। তবে বর্তমানে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৮৫ জন এ পৌঁছেছে বলে জানিয়েছেন বেলুচিস্তান রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ফাইজ কাকার।

এদিকে, প্রদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আঘা উমর বাঙ্গালজাই ডন নিউজকে জানান, সিরাজ আহত অবস্থায় কোয়েটায় নিয়ে যাওয়ার সময় মারা যান। এখন পর্যন্ত মনে হচ্ছে এটি একটি আত্মঘাতী হামলা ছিল।

নওয়াবজাদা সিরাজ বেলুচিস্তানের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী নওয়াব আসলাম রাইসানির ছোট ভাই ছিলেন। এর আগে দেশটির ক্ষমতাচ্যুত সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ প্রতিষ্ঠিত পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজ (পিএমএল-এন) এর সাথে জোটে ছিল। তখন তার দলের নাম ছিল বেলুচিস্তান মুত্তাহিদা নওয়াজ।

গত মার্চে এই জোট ভেঙে গেলে জুন মাসে বিএপি এর সাথে নিজ দল নিয়ে যোগ দেয় সিরাজ।

এর আগে ২০১১ সালেও হামলার শিকার হয়েছিলেন সিরাজ। মাস্টাং জেলার এক ফুটবল স্টেডিয়ামে খেলা দেখার সময় হামলা হয়েছিল সিরাজের ওপর। সে হামলায় সিরাজের কিশোর বয়সী ছেলে আকমল রাইসানী নিহত হয়েছিলেন।

প্রসঙ্গত, আগামী ২৫ জুলাই সাধারণ নির্বাচন উপলক্ষ্যে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে দেশটির রাজনৈতিক পাড়া। ধারণা করা হচ্ছে, রাজনৈতিক কারণেই এই বোমা হামলা ঘটানো হয়েছে।

 

দেশরির্পোট/এএইচ


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন