প্রধান সংবাদসারাবিশ্ব

মুক্তি পেলেন মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক

দুর্নীতির অভিযোগে প্রেপ্তারের একদিন পর মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাককে মুক্তি দেওয়া হয়েছে। আজ বুধবার তাকে জামিনে মুক্তি দিয়েছেন দেশটির আদালত। ওয়ানএমডিবি নামের রাষ্ট্রীয় বিনিয়োগ তহবিল থেকে কয়েক মিলিয়ন ডলার আত্মসাতের অভিযোগে গত মঙ্গলবার গ্রেপ্তার হন তিনি।

বুধবার মুক্তি পাওয়ার পর সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রীয় বিনিয়োগ তহবিল থেকে অর্থ লুটের অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছেন। কুয়ালালামপুরের আদালতে ক্ষমতার অপব্যবহারসহ ও ২০১৪ সালের ডিসেম্বর থেকে ২০১৫ সালের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত রাষ্ট্রীয় বিনিয়োগ তহবিল থেকে ৪২ মিলিয়ন রিঙ্গিত (এক কোটি মার্কিন ডলার) নিজের অ্যাকাউন্টে হস্তান্তরের দায়ে বিশ্বাসভঙ্গের তিনটি ফৌজদারি অভিযোগ আনা হয় নাজিবের বিরুদ্ধে।

এক মিলিয়ন মালয়েশীয় রিঙ্গিতের বিনিময়ে আদালত সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর জামিন মঞ্জুর করেছেন। জামিনে মুক্তি পাওয়ার পর নিজেকে নির্দোষ প্রমাণের অঙ্গীকার করেছেন তিনি। আদালত আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি থেকে নাজিবের বিরুদ্ধে শুনানি কার্যক্রম আবারো শুরু হবে বলে সময় নির্ধারণ করেছেন।

আদালত থেকে বেরিয়ে নাজিব রাজাক বলেন, ‘আমি এর মাধ্যমে (জামিনের) আশা করছি, বিচারের প্রক্রিয়া সত্যিই ন্যায্য এবং আইনের শাসন অনুসরণ করে। আমি নির্দোষ এবং এতে আমার দৃঢ় আত্মবিশ্বাস রয়েছে। নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করার এটাই সুযোগ।’

রাষ্ট্রীয় তহবিলের অর্থ নিজের অ্যাকাউন্টে স্থানান্তরসহ অন্য তিনটি অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত হলে সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী প্রত্যেক অভিযোগের দায়ে ২০ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত হবেন।

তবে নাজিব রাজাক বলেছেন, ‘রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়ে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে। এর আগে মঙ্গলবার নাজিবকে গ্রেপ্তারের পর তার সৎ ছেলে ও হলিউডের চলচ্চিত্র প্রযোজক রিজা আজিজকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দেশটির দুর্নীতি দমন সংস্থা।

 

 

দেশরির্পোট/জেড,আর/জনি


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন