প্রধান সংবাদরাজনীতি

২১ জুলাই প্রধানমন্ত্রীকে সংবর্ধনা দেবে আওয়ামী লীগ

বর্তমান সরকারের অসামান্য উন্নয়ন ও অর্জনের জন্য রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আগামী ২১ জুলাই বিকেল ৩টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে গণসংবর্ধনা দেবে আওয়ামী লীগ।

বাংলাদেশকে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নীল দেশে পরিণত, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১’র সফল উৎক্ষেপণ, অষ্ট্রেলিয়ার সিডনি থেকে উইমেন লিডারশিপ অ্যাওয়ার্ড এবং ভারতের আসানসোলের কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডি-লিট ডিগ্রি অর্জন করায় এই গণসংবর্ধনা দেওয়া হবে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের রোববার দুপুরে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে দলের নবনির্মিত কার্যালয়ে সহযোগী সংগঠন ও ঢাকার আশেপাশের জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের নেতাদের সঙ্গে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান। খবর বাসসের

আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনাকে দেওয়া গণসংবর্ধনাকে সফল করতে দলের সহযোগী সংগঠনসমূহের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক, ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক, ঢাকার আশেপাশের জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এবং দলীয় সংসদ সদস্যদের নিয়ে আওয়ামী লীগের সঙ্গে এই মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন, ড. আব্দুর রাজ্জাক, অ্যাডভোকেট আব্দুল মতিন খসরু, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ, অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমেদ হোসেন, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, এ কে এম এনামুল হক শামীম, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ, দপ্তর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার আব্দুস সবুর, আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট মোল্লা মো. আবু কাওছার, জাতীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি শুক্কুর মাহমুদ, যুব মহিলা লীগের সভাপতি নাজমা আক্তার, মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদা বেগম ক্রিক ও গাজীপুর সিটি করপোরেশনের নব নির্বাচিত মেয়র জাহাঙ্গীর আলমসহ ঢাকার আশেপাশের জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এবং দলীয় সংসদ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমরা আশা করছি, আগামী ২১ জুলাই বর্তমান সরকারের অসাধারণ উন্নয়ন ও অর্জনের জন্য আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনাকে যে গণসংবর্ধনা দেওয়া হবে তা স্বরণাতীতকালের সবচেয়ে বড় সংবর্ধনা অনুষ্ঠান হবে।’

তিনি বলেন, সেই লক্ষ্যকে সামনে রেখে প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি গ্রহণ করার জন্য এই মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হলো। সভায় গণসংবর্ধনাকে সফল করার জন্য সার্বিক বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে।

সেতুমন্ত্রী বলেন, বস্ত্র ও পাট প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম এবং বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপুর নেতৃত্বে মঞ্চ ও সাজসয্যা উপ-কমিটি গঠন করা হয়েছে। অনুষ্ঠানের অন্যান্য কাজের দায়িত্বও ইতোমধ্যে ভাগ করে দেওয়া হয়েছে।

 

দেশরির্পোট/এ এইচ


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন