বিনোদন

সময়টা এখন জয়ার…

শুধু দেশে নয়, দেশের পাশাপাশি জয়া আহসান এখন কাজ করছেন ভারতেও। ভারতের বাংলা ছবির এ সময়ের অন্যতম জনপ্রিয় তারকা তিনি। আর নির্মাতাদের কাছে নির্ভরযোগ্য একজন শিল্পী। জয়ার অভিনয়ে মুগ্ধ সবাই। তাঁর এবং তাঁর কাজের যেমন ভক্ত রয়েছে, পাশাপাশি অনেক পরিচালক, প্রযোজক আর অভিনয়শিল্পীর সঙ্গে বন্ধুত্ব তাঁর। এরই মধ্যে প্রযোজক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছেন জয়া আহসান। এ কাজে জয়াকে অনেকেই সমর্থন করছেন। তাঁর পাশে দাঁড়িয়েছেন। এগিয়ে এসেছেন প্রচারে। কারণ এরই মধ্যে প্রযোজক জয়া আহসানের প্রথম ছবি ‘দেবী’র কাজ শেষ। এখন মুক্তির জন্য নেওয়া হয়েছে নানা প্রস্তুতি। আগামী ১৯ অক্টোবর মুক্তি পেতে যাচ্ছে ‘দেবী’। আর দূর্গাপুজা উপলক্ষ্যে কলকাতায় মুক্তি পেয়েছে জয়া আহসানের টালিউড মুভি ‘এক যে ছিল রাজা’। বলা যেতেই পারে সবমিলিয়ে সময়টা এখন জয়ারই। কারন দুই দেশের মিডিয়া এখন তার প্রশংসায় সরব হয়েছে । আর এই দুই ছবির প্রচারণা নিয়ে এখন ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন নায়িকা। তবে টালিউডে থেকে ঢালিউডেই সময়টা একটু বেশি দিচ্ছেন তিনি। শত হলেও তার প্রযোজিত প্রথম ছবি ‘দেবী’। এতো তার প্রথম সন্তানের মতোই।

ভারতীয় মিডিয়াকে জয়া জানান, এক যে ছিল রাজা’র শুটিংও তাঁর কাছে টাইমমেশিনে চড়ে এক অভিনব জার্নি। পিরিয়ড ড্রামা তার খুব পছন্দের। ইতিহাস নিয়ে তার জানান খুব আগ্রহ। বললেন, ‘জানি না, কেন অ্যাকাউন্টস নিয়ে পড়লাম। কখনও মনে হয়, ভুল সময়ে জন্মেছি আমি। মা-বাবার ব্যবহার করা পারফিউমের শিশির তলানিটুকু পড়ে আছে। সেটাও আমি যত্ন করে রেখে দিয়েছি।

জয়া আরও বলেন, ভাওয়াল সন্ন্যাসীর গল্প আমার কাছে রূপকথার মতোই। ঢাকার অদূরেই গাজিপুরে ভাওয়ালগড়, শালবনেই বেশির ভাগ ছবির শুটিং হয়। এই ছবির পরে যখন ওই জায়গাগুলোয় গিয়েছি, গল্প আর সত্যি যেন আমার কাছে মিলেমিশে গিয়েছে।

 

 

 


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন