স্বাস্থ্য

হাসপাতালে রেটিং নির্ধারণে বিশেষ আইন প্রণীত হবে

জনগণের জন্য মানসম্মত চিকিৎসা নিশ্চিত করতে হাসপাতালের রেটিং নির্ধারণে বিশেষ আইন প্রণয়ন করবে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়। বিভিন্ন দেশের আইন ও রেটিং পর্যালোচনা ব্যবস্থা বিশ্লেষণ করে শিগগিরই একটি অ্যাক্রিডিটেশন আইনের খসড়া চূড়ান্ত করতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।

সোমবার সচিবালয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে হাসপাতালে সেবার মান বৃদ্ধিতে করণীয় বিষয়ে এক মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্বকালে স্বাস্থ্যমন্ত্রী এই আইন প্রণয়নের নির্দেশ দেন।

এসময় মন্ত্রী বলেন, জনগণ যথাযথ চিকিৎসা নেয়ার জন্য মানসম্মত হাসপাতালের শরণাপন্ন হয়। কিন্তু অনেকেই জানেন না কোন হাসপাতালের সেবা কেমন। দেশের সকল সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতাল সম্পর্কে সঠিক তথ্য সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছাতে এরকম একটি আইন প্রণয়ন জরুরি হয়ে পড়েছে।

চিকিৎসক, নার্স এবং কর্মকর্তা-কর্মচারীর পর্যাপ্ততা, যন্ত্রপাতি ও শয্যার মানসহ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা পরিস্থিতিসহ সার্বিক খুঁটিনাটি বিচার বিশ্লেষণ করে হাসপাতালের রেটিং জনগণকে তাদের পছন্দ নির্বাচনে সাহায্য করবে বলে মনে করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। এর ফলে হাসপাতালগুলোর মধ্যে সেবার মান বাড়ানোর জন্য সুস্থ প্রতিযোগিতার সুযোগ সৃষ্টি হবে বলেও তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

সভায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, ঢাকাসহ দেশের কয়েকটি বড় জেলায় সরকারি হাসপাতালে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা ও বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কাজ বেসরকারি সংস্থার উপর অর্পণ করা হবে।

তিনি বলেন, সরকারি হাসপাতালে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমে প্রয়োজনে বিদেশি প্রতিষ্ঠানের সাহায্য নেয়া হবে। এসময় তিনি সম্প্রতি শ্রীলংকা ও মালায়েশিয়া সফরকালে সেদেশের হাসপাতালের পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম ব্যবস্থাপনার চিত্র তুলে ধরেন।

সভায় অন্যান্যের মাঝে স্বাস্থ্য সচিব সৈয়দ মন্জুরুল ইসলাম, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খান, স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. দীন মোহাম্মদ নূরুল হক, বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি অধ্যাপক ডা. মাহমুদ হাসান, মহাসচিব অধ্যাপক ডা. ইকবাল আর্সলান, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের মহাসচিব অধ্যাপক ডা. আব্দুল আজিজসহ মন্ত্রণালয় ও অধিদফতরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন