বিনোদন

সজল অপর্ণার ‘কৃষ্ণকলির আত্মকথা’

অনেক আগেই ঈদের ছুটি কাটিয়ে অভিনয়ে নিয়মিত হয়েছেন আবদুন নূর সজল। এরই মধ্যে কয়েকটি খণ্ডনাটকের শুটিংও করেছেন। তার মধ্যে একটি হচ্ছে ‘কৃষ্ণকলির আত্মকথা’। ইউসুফ বাশার রচনায় এটি পরিচালনা করেছেন শ্রাবণ চক্রবর্তী দিপু।নাটকে সজলের বিপরীতে অভিনয় করেছেন অপর্ণা ঘোষ। নাটকের দৃশ্যধারণের কাজ হয়েছে মানিকগঞ্জের বেতিলা জমিদার বাড়িতে। নাটকে কৃষ্ণকলির ভূমিকায় অভিনয় করেছেন অপর্ণা এবং জমিদারের ছেলে প্রতুল জোয়াদ্দারের চরিত্রে অভিনয় করেছেন সজল।

গল্পে দেখা যাবে, জেলের মেয়ে কৃষ্ণকলির সঙ্গে প্রেম হয় জমিদারের ছেলে প্রতুল জোয়াদ্দারের। রতুলের বাবা-মায়ের চাপে একসময় নিজেকে সেই সম্পর্ক থেকে সরিয়ে নেয় কৃষ্ণকলি। কিন্তু কৃষ্ণকলির ইচ্ছেতে অন্য এক ছেলের সঙ্গে তার বিয়ের দাওয়াত পেয়ে উপস্থিত হয় প্রতুল। শ্বশুরবাড়ি যাওয়ার আগে কৃষ্ণকলি প্রতুলকে প্রণাম করে। কিন্তু এরপর আর খুঁজে পাওয়া যায়নি কৃষ্ণকলিকে। কারণ কৃষ্ণকলি নিজেকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়। এমনই এগিয়ে যাওয়া গল্পে নিয়ে নির্মান হয়েছে ‘কৃষ্ণকলির আত্মকথা’।

সজল বলেন, এ নাটকের গল্প আমার বেশ ভালো লেগেছে। কিছুটা আবেগী। অপর্ণার সঙ্গে অনেক ভালো ভালো গল্পে আমি কাজ করেছি। তার সঙ্গে কাজের সময়টুকু আমি দারুণ উপভোগ করি। আশা করি নাটকটি দর্শকের ভালো লাগবে।

অপর্ণা ঘোষ বলেন, কৃষ্ণকলি বেশ চ্যালেঞ্জিং একটি চরিত্র। প্রচণ্ড গরমের মধ্যে আমরা মানিকগঞ্জে কাজটি করেছি। আমি কাজটি নিয়ে খুবই আশাবাদী। সজল ভাইয়ের সঙ্গে সবসময়ই কাজ করতে ভীষণ স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি।

জানা গেছে নাটকটি  শিগগিরই একটি বেসরকারী চ্যানেলে প্রচার হবে।


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

Tags

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন