আইন-আদালত

মইনুলকে কারাগারে দেখতে আইনজীবী বা পরিবারের কেউ যাননি

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন মানহানির মামলায় পাঁচ দিন আগে কারান্তরীণ হলেও এ পর্যন্ত তাকে কারাগারে দেখতে আইনজীবী বা পরিবারের পক্ষ থেকে কেউ যাননি।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কেরানীগঞ্জে অবস্থিত ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার মাহবুব আলম।

তিনি বলেন, মইনুল হোসেনের সঙ্গে দেখা করতে তার আইনজীবী বা পরিবারের পক্ষ থেকে কেউ আসেননি। তার এক স্বজন দেখা করার কথা বলে কারা কর্তৃপক্ষের কাছে দুদিন আগে চিঠি পাঠালেও তিনি আসেননি।

মাহবুব আলম বলেন, মইনুল হোসেনের সঙ্গে দেখা করার ক্ষেত্রে কোনো বাধানিষেধ নেই। তার সঙ্গে দেখা করার সুযোগ রয়েছে। কেউ এলে কারাবিধি অনুযায়ী অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তাকে এখনো সাধারণ বন্দিদের মতই রাখা হয়েছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে সাধারণ বন্দিদের সঙ্গেই রাখা হয়েছে। আদালতের নির্দেশনা না থাকায় তাকে বিশেষ কোনো সুবিধা (ডিভিশন) দেওয়ার সুযোগ নেই। তার জন্য আলাদা কোন ব্যবস্থা নেই। যেখানে রাখা হয়েছে, সেখানে ৪০ জনের মতো বন্দি রয়েছে।

এদিকে ব্যারিস্টার মইনুলের আইনজীবী তুহিন হাওলাদার বলেন, রংপুরের মামলায় গ্রেফতার হওয়ায় সেখানকার আদালতে ডিভিশনের জন্য আবেদন করা হয়েছিল। কিন্তু মূল নথি আদালতে না পৌঁছায় কোনো নির্দেশনা পাওয়া যায়নি।

তিনি বলেন, আইনজীবীদের পক্ষ থেকে মইনুল হোসেনের সঙ্গে দেখা করা হয়নি। তার পরিবারের কোনো সদস্য দেখা করেছে কি না তা তার জানা নেই। তবে একজন দেহরক্ষী আছেন, তিনি কাপড় দেওয়াসহ বিভিন্ন বিষয়ে যোগাযোগ রাখছেন।

সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টিকে বেসরকারি একটি টেলিভিশনের টকশোতে কটূক্তির অভিযোগে রংপুরে দায়ের করা একটি মামলায় গত সোমবার রাতে মইনুল হোসেনকে গ্রেফতার করে গোয়েন্দা পুলিশ।

পরের দিন আদালত থেকে তাকে কারাগারে পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

এছাড়াও সোমবার ভোলা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও রংপুরে ব্যারিস্টার মইনুলের বিরুদ্ধে মানহানি মামলা করে নারী সাংবাদিক ও নারী নেত্রিরা। এর মধ্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মামলায়ও তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত।

 

 

দেশরির্পোট/রবিন


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন