জাতীয়

রাজনৈতিক দলের অভিযোগ সংক্রান্ত কোনো চিঠি আমলে নেয়া হবে

নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব হেলালুদ্দীন আহমেদ বলেছেন, রাজনৈতিক দলের অভিযোগ সংক্রান্ত কোনো চিঠি আমলে নেয়া হবে। রাজনৈতিক দলের চিঠি আমলের নেয়ার পরিবর্তে প্রার্থীর অভিযোগ সংক্রান্ত বিষয়গুলো কমিশন বেশি গুরুত্ব দিবে। অর্থাৎ রাজনৈতিক দলের পরিবর্তে প্রার্থীর অভিযোগ আমলে নেয়া হবে।

রোববার সন্ধ্যায় তার নির্বাচন ভবনের কার্যালয় থেকে বের হয়ে হওয়ার সময় সাংবাদিকদের একথা বলেন তিনি।

হেলালুদ্দীন আহমেদ বলেন, রোববার কমিশন সভায় বিএনপির বিভিন্ন অভিযোগ সংক্রান্ত বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। বেশ কয়েকটি বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এগুলো আগামীকাল সোমবার জানানো হবে।

বিএনপির পক্ষ থেকে গত ২২ নভেম্বর ১৩টি চিঠিতে পুলিশ প্রশাসনে রদবদল, রাষ্ট্রপতির সরকারি বাসভবন বঙ্গভবনে নির্বাচনী প্রচারণা কার্যক্রম পরিচালনা এবং প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে রিটানিং কর্মকর্তাদের নিয়ে বৈঠক প্রসঙ্গে কোনো সিদ্ধান্ত হয়েছে কিনা জানতে চাইলে ইসি সচিব বলেন, বিএনপি অনেকগুলো চিঠি দিয়েছে তবে কিছু কিছু বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। আগামীকাল সোমবার তা জানিয়ে দেয়া হবে।

পুলিশ প্রশাসনে রদবদল প্রসঙ্গে তিনি বলেন, কোনো রাজনৈতিক দলের অভিযোগের আলোকে নয় বরং মন্ত্রণালয় থেকে যদি কোনো কর্মকর্তার বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ আসে তাহলে তার বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশন প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করবে।

রাষ্ট্রপতির সরকারি বাসভবন বঙ্গভবনকে দলীয় কার্যক্রম ও নির্বাচনী প্রচারণায় ব্যবহার বিষয়ে বিএনপির অভিযোগ প্রসঙ্গে ইসি সচিব বলেন, এ বিষয়ে কোন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি। কমিশন এ বিষয়ে কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না। তিনি বলেন, বঙ্গভবনে বসে কে খাওয়া দাওয়া করলো এ বিষযে কমিশনের ব্যবস্থা নেয়ার কী আছে।

গত ২২ নভেম্বর বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলালের নেতৃত্বে বিএনপির তিন সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল ইসিতে ১৩টি অভিযোগ সংক্রান্ত বিষয়ে একটি চিঠি হস্তান্তর করেন। এসব চিঠিতে নির্বাচনে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নিশ্চিত করা, ইসি সচিবসহ সরকারের আরও দুই সচিব চট্টগ্রামের রিটার্নিং অফিসার (জেলা প্রশাসক) ও পুলিশ সুপারদের নিয়ে বৈঠক করে আচরণবিধি লঙ্ঘন করার অভিযোগ রয়েছে। এছাড়াও চিঠিতে পুলিশের ৭০ জন কর্মকর্তার প্রত্যাহারের দাবি করা হয়।

আগামী ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় ২৮ নভেম্বর। মনোনয়নপত্র বাছাই ২ডিসেম্বর। প্রার্থিতা প্রত্যাহার ৯ ডিসেম্বর। আর প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হবে ১০ ডিসেম্বর।

 

 

সিএসবি


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন