সারাবিশ্ব

শ্রীলঙ্কার সেনাপ্রধান রবীন্দ্র উইজগুনরত্নেকে কারাগারে প্রেরন

গ্রেপ্তার এড়াতে দুই মাস পালিয়ে বেড়ানোর পর অবশেষে আদালতে হাজিরা দিতে আসা শ্রীলঙ্কার সেনাপ্রধান রবীন্দ্র উইজগুনরত্নেকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। গতকাল বুধবার আদালতে হাজির হলে তাকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠানো হয় বলে জানিয়েছে বিবিসি।

আইনজীবীরা জানান, শ্রীলঙ্কায় ২৬ বছর ধরে চলা গৃহযুদ্ধের সময় ১১ তরুণকে অপহরণ ও খুনের ঘটনার সঙ্গে উইজগুনরত্নের সম্পৃক্ততা পাওয়া গেছে। আর এ কারণেই তাকে পুলিশ হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

শ্রীলঙ্কার এই সেনাপ্রধান আগামী ৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত আটক থাকবেন। এই সময়ের মধ্যে তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ সম্পর্কে আরও তদন্ত করা হবে। এদিকে তার জামিন আবেদন নাকচ করার বিষয়ে দেশটির ম্যাজিস্ট্রেট রাঙ্গা দিশানায়েকে বলেন, উইজগুনরত্নে তদন্তে বিঘ্ন ঘটাতে পারেন। এ কারণে তদন্ত শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত পুলিশ হেফাজতে থাকতে হবে তাকে।

২০০৮ সালে গৃহযুদ্ধ চলার সময় শ্রীলঙ্কায় অনেক অপহরণের ঘটনা ঘটে। তখন ১১ তরুণ অপহরণ হওয়ার বিষয়টি গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করেছিল আন্তর্জাতিক কয়েকটি মানবাধিকার সংগঠন। অতীতে শ্রীলঙ্কায় মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিষয়গুলো নিয়ে সম্প্রতি তদন্ত শুরু হয়েছে। এ কারণেই  ২০০৮ সালের অপহরণের ঘটনাটি নতুন করে সামনে এলো।

 

সিএসবি


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন