সারাবিশ্ব

ইমরানের সাহায্য চেয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্পের চিঠি

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প আফগানিস্তানে শান্তি প্রতিষ্ঠায় পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সহায়তা চেয়ে চিঠি দিয়েছেন। বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে সোমবার একথা জানান পাকিস্তানের তথ্যমন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরি।

মাত্র কয়েক সপ্তাহ আগেই জঙ্গিদমনে পাকিস্তান যথেষ্ট সহযোগিতা করছে না বলে একাধিক জায়গায় মন্তব্য করেছিলেন ট্রাম্প। সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে আমেরিকার লড়াইয়ে পাকিস্তান ‘কিছুই করেনি’, বলেছিলেন তিনি।

সেই পাকিস্তানের কাছেই সাহায্য চাইতে হলো মার্কিন প্রেসিডেন্টকে। আফগানিস্তানে তালেবানদের সঙ্গে শান্তি আলোচনায় প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সাহায্য চাইলেন ট্রাম্প।

ট্রাম্প আফগান যুদ্ধের অবসান চান। ১৭ বছর ধরে তালেবানের সঙ্গে যুদ্ধ করছে আফগান সেনা। ২০০১ সালে আমেরিকায় ১১ সেপ্টেম্বরের হামলার পর ন্যাটো বাহিনী আফগানিস্তান আক্রমণ করে।

আমেরিকার উদ্দেশ্য ছিল তালেবানকে ক্ষমতা থেকে অপসারণ করে আফগানিস্তানে একটি স্থিতিশীল গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রের সৃষ্টি করা। কিন্তু সেই উদ্দেশ্য কতটা সফল হয়েছে তা নিয়ে প্রশ্ন তুলে ট্রাম্পেরও পাল্টা সমালোচনা করেছিলেন ইমরান।

ফাওয়াদ চৌধুরী সংবাদসংস্থা রয়টার্সকে জানান, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের একটি চিঠি পেয়েছেন তারা। তালেবানকে আলোচনার টেবিলে নিয়ে আসতে পাকিস্তানের সহযোগিতা চেয়েছেন তিনি।

চিঠিতে ট্রাম্প পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরানকে উদ্দেশ্য করে লিখেছেন, আফগানিস্তান সমস্যা মেটাতে পাকিস্তানকে পাশে চায় আমেরিকা।

ইসলামাবাদে অবস্থিত মার্কিন দূতাবাসের ট্রাম্পের চিঠির বিষয়ে কোনও প্রতিক্রিয়া দেয়নি গণমাধ্যমকে।

ট্রাম্পের মন্তব্যের পর পাকিস্তান মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে তলব করে তার প্রতিবাদ জানিয়েছিল।

আফগান যুদ্ধে ইতি টানতে চান সেদেশের প্রেসিডেন্ট আসরাফ ঘানিও। গত সপ্তাহে জানা যায়, তালেবানের সঙ্গে শান্তি আলোচনা শুরু করতে ১২ জনের একটি টিম তৈরি করেছেন তিনি। যারা শান্তি স্থাপনে তালেবানের সঙ্গে আলোচনা করবে।

 

সিএসজি


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন