বিনোদন

আজ নায়ক মান্নার জন্মদিন

১৯৬৪ সালেহাতীতে জন্ম নেন মান্না। তার আসল নাম এস এম আসলাম তালুকদার]। উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় পাস করার পরই ১৯৮৪ সালে তিনি ‘নতুন মুখের সন্ধানে’র মাধ্যমে চলচ্চিত্রে আসেন। এরপর থেকে একের পর এক চলচ্চিত্রে অভিনয় করে নিজেকে সেরা নায়ক হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেন। তিনি ২০০ এর অধিক সিনেমায় অভিনয় করেন। মান্না বঞ্চিত মানুষের কথা সিনেমার পর্দাই দশকে অশ্লীল চলচ্চিত্র নির্মাণের ধারা শুরু হলে যে কজন প্রথমেই এর প্রতিবাদ করেছিলেন,তাদের মধ্যে নায়ক মান্না ছিলেন অন্যতম। রীতিমতো যুদ্ধ করেছেন অশ্লীল চলচ্চিত্রের বিরুদ্ধে। এসব চলচ্চিত্রের নির্মাতাদের সঙ্গে লড়াই করে শেষ পর্যন্ত জয়ী হয়েছিলেন। দাঙ্গা, লুটতরাজ, তেজী, আম্মাজান, আব্বাজান প্রভৃতি চলচ্চিত্রে চমৎকার অভিনয় এর মাধ্যমে জনপ্রিয়তার চূড়া ছুঁয়েছিলেন মান্না। তাঁর অভিনীত আম্মাজান চলচ্চিত্রটি বাংলাদেশের সর্বাধিক ব্যবসাসফল ও জনপ্রিয় চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে অন্যতম।

মান্না শুধু চলচ্চিত্র অভিনেতাই ছিলেন না, তাঁর প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান থেকে যতগুলো ছবি প্রযোজনা করেছেন, প্রতিটি ছবি ব্যবসাসফল হয়েছিল। ছবিগুলো হচ্ছে লুটতরাজ, লাল বাদশা, আব্বাজান, স্বামী স্ত্রীর যুদ্ধ, দুই বধু এক স্বামী, মনের সাথে যুদ্ধ, মান্না ভাই ও পিতা মাতার আমানত।

উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্রসম্পাদনা

দাঙ্গা (১৯৯২),দেশপ্রমিক, চিরঋনী [শাবনূর, অমিত হাসান, লুটতরাজ ,তেজী,কষ্ট,আম্মাজান, আব্বাজান, বীরসৈনিক ,স্বামী স্ত্রীর যুদ্ধ, দুই বধু এক স্বামী,মনের সাথে যুদ্ধ,বাঘের বাচ্চা,পিতা মাতার আমানত।

সম্মাননাসম্পাদনা

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার – সেরা অভিনেতা (২০০৫)
মেরিল-প্রথম আলো পরষ্কার – সেরা অভিনেতা
মৃত্যুসম্পাদনা

কীর্তিমান এই অভিনেতা ২০০৮ সালের ১৭ই ফেব্রুয়ারি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মাত্র ৪৪ বছর বয়সে অকাল মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুর পর তার জানাজা এফ’ডিসিতে হয়। ২য় জানাজা স্মৃতিষৌধে হওয়ার কথা ছিল, কিন্তু দর্শক অ ভক্তকুলের ভিড়ের কারনে পুরা ঢাকায় অত্যন্ত জ্যাম থাকায় তাকে সেখানে নিয়ে যাওয়া সম্ভব হয়নি। নিজ গ্রামে তাঁকে চিরতরে সমাহিত করা হয়। মৃত্যুর পূর্বপর্যন্ত তিনি বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। বিশেষ এই দিনটিকে স্মরণ করছে মান্নার কাছের মানুষ ও অগণিত ভক্ত ও শুভাকাঙ্ক্ষীরা।

 


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন