খেলা

সিরিজে সমতা সাকিবই বড় নায়ক!

সিরিজ বাঁচিয়ে রাখতে হলে জিততেই হতো। মিরপুরে আজ সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে এই সমীকরণ দারুণভাবেই মিলিয়েছে বাংলাদেশ। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৩৬ রানে হারিয়ে সমতা ফিরিয়েছে সিরিজে। টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামা বাংলাদেশ ৪ উইকেট হারিয়ে গড়ে ২১১ রানের বিশাল পুঁজি। টি-টোয়েন্টিতে যা বাংলাদেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সংগ্রহ। ২১২ রানের লক্ষ্য তাড়ায় সাকিব আল হাসানের ঘূর্ণির মুখে ১৭৫ রানেই থেমেছে ক্যারিবীয়দের ইনিংস।

৩৬ রানের দারুণ এই জয়ে অধিনায়ক সাকিব আল হাসানই বড় নায়ক। প্রথমে ব্যাট হাতে করেছেন ২৬ বলে অপরাজিত ৪২ রানের ইনিংস। এরপর বল হাতে ক্যারিয়ারে প্রথম বারের মতো নিয়েছেন ৫ উইকেট। তবে সাকিবের পাশাপাশি লিটন দাস, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মেহেদী হাসান মিরাজদের অবদানও কম নয়।

দলকে বড় সংগ্রহের ভিত্তিটা প্রথমে গড়েন দেন লিটন দাস। তিনি খেলেছেন ৩৪ বলে ৬০ রানের আলো ঝলমলে এক ইনিংস। এই পথে তিনি ওপেনার তামিম ইকবালের সঙ্গে গড়েন ৪২ রানের উদ্বোধনী জুটি। এরপর সৌম্য সরকারকে নিয়ে গড়েন ৫৮ রানের জুটি। লিটনের এনে দেওয়া ভিত্তির উপর দাঁড়িয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহকে দ্বিতীয় বারের মতো ২০০-এর উপরে নিয়ে যান সাকিব ও মাহমুদউল্লাহ। পঞ্চম উইকেটে মাত্র ৭ ওভারেই তারা গড়েন ৯১ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি। তাতে মাহমুদউল্লাহর অবদান ২১ বলে অপরাজিত ৪৩ রান।

পরে বল হাতেও একটি উইকেট নিয়েছেন মাহমুদউল্লাহ। প্রথমে মার খেলেও শেষ দিকে উইকেট তুলে নিয়েছেন মোস্তাফিজ। ফলে অবদান আছে তারও।

জয়ের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ওয়েস্ট ইন্ডিজ অবশ্য শুরুতে ভয়ই ধরিয়ে দিয়েছিল। আসলে ভয়টা ধরিয়েছিলেন এই সফরে বাংলাদেশের আতঙ্কের নাম হয়ে উঠা শাই হোপ। ডান হাতি এই ওপেনারের ঝড়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ মাত্র ৪ ওভারেই তুলে ফেলে ৫১ রান। ৫ ওভারে তাদের সংগ্রহ ছিল ৬২। বাংলাদেশ শিবিরে তখন হারের শঙ্কাই বাজতে শুরু করে। হোপ ঝড় থামিয়ে সেই শঙ্কা সাময়িকের জন্য মুছে দেন মেহেদী হাসান মিরাজ।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের সব ব্যাটসম্যানই টি-টোয়েন্টিতে দুর্দান্ত। এরপরও তাই শঙ্কা কিছুটা ছিলই। একটু একটু করে সেই শঙ্কার মেঘ ফুড়ে বাংলাদেশের জয়ের আকাশ উজ্জ্বল করেছেন সাকিব আল হাসান। যার শেষ আচড় দিয়েছেন মোস্তাফিজ ও মাহমুদউল্লাহ।

ক্যারিবীয়দের পক্ষে সর্বোচ্চ ৫০ রান করেছেন রভমন পাওয়েল। এছাড়া শাই হোপ ৩৬, কেমো পল ২৯, শিমরন হেটমেয়ার ১৯, নিকোলাস পুরান ১৪ রান করেন।

ব্যঅট হাতে ২৬ বল অপরাজিত ৪২ ও বল হাতে ক্যারিয়ার সেরা বোলিং। ২১ রান খরচায় ৫ উইকেট-অলরাউন্ড নৈপূণ্যে ম্যাচসেরার পুরস্কারটি পেয়েছেন সাকিব আল হাসান।

বাংলাদেশের এই ঘুরে দাঁড়ানো জয়ে সিরিজের তৃতীয় ম্যাচটি রূপ নিল অলিখিত ফাইনালে। যে ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে শনিবার, এই মিরপুরেই।

 

 

 


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন