বিনোদন

ফ্রান্সে পুরস্কার পেল ‘কমলা রকেট’

ইমপ্রেস টেলিফিল্ম প্রযোজিত ও নূর ইমরান মিঠুর পরিচালিত ‘কমলা রকেট’ ছবিটি এবার এবার প্যারিস জয় করলো। ফ্রান্সে সদ্য সমাপ্ত দক্ষিণ এশিয়া চলচ্চিত্র উৎসব (ফেস্টিভাল দ্যু ফিল্ম দ্য এশিয়া দ্যু সউড) এর ৬ষ্ট আসরে ছবিটি প্রধান পুরস্কার ‘জুরি প্রাইজ’ জিতে নেয়।

গেল ১২ ফেব্রুয়ারি ফ্রান্সের সবচেয়ে বনেদি শহর প্যারিসে বসেছিলো উপমহাদেশের বেশকিছু আলোচিত ছবি নিয়ে চলচ্চিত্র উৎসব ‘ফেস্টিভাল দ্যু ফিল্ম দ্য এশিয়া দ্যু সউড’ এর ৬ষ্ঠ আসর। ৬ দিনব্যাপী এই চলচ্চিত্র উৎসবে এবার ফোকাস ছিলো এশিয়ার তরুণ নির্মাতাদের ছবি! যেখানে ছবি নিয়ে হাজির হতে দেখা যায় ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা ও নেপালের তরুণ নির্মাতারা।

উৎসবে উপস্থিত ছিলেন তারকা অভিনেতা ও নির্মাতারাও। বিভিন্ন সময় অতিথি হিসেবে দেখা গেছে বলিউড অভিনেত্রী কালকি কোয়েচলিন, সাবিহা সুমার, আরশাদ খান ও হার্দিক মেহতা সহ অনেককে। ছিলেন বিশ্বের বিভিন্ন দেশের জুরিরা।উৎসবে হাজির না হলেও প্রধান পুরস্কার (জুরি প্রাইজ) বাগিয়ে নেন বাংলাদেশের তরুণ নির্মাতা নূর ইমরান মিঠু।

প্রতিযোগিতা বিভাগে ‘কমলা রকেট’ সহ ছিলো মোট ৭টি ছবি। এরমধ্যে ছিলো ভারতের প্রখ্যাত নির্মাতা অনুরাগ কাশ্যপের ছবি ‘মুক্কাবাজ’, কর্ম তাকাপার ‘রালাং রোড’, হার্দিক মেহতার ‘রাউন্ড ফিগার’, নিকোলাস জোলের ‘সংঘর্ষ, দ্য টাইম অব দ্য ফাইট’, পাকিস্তানি নির্মাতা আরশাদ খানের ‘আবু: ফাদার’ এবং সাবিহা সুমারের ‘আজমাইশ: জার্নি থ্রো দ্য সাবকন্টিনেন্ট’।

‘কমলা রকেট’ এর প্রধান পুরস্কার বাগিয়ে নেয়া ছাড়াও এই উৎসবে ‘পাব্লিক প্রাইজ’ জিতে নেয় ভারতীয় ছবি ‘রাউন্ড ফিগার’। ছবিটির নির্মাতা হার্দিক মেহতা। ‘ফাদার’ এর জন্য ‘স্টুডেন্ট জুরি প্রাইজ’ জিতে নেয় পাকিস্তানের আরশাদ খান।

এদিকে প্রধান পুরস্কার অর্জন ছাড়াও ‘কমলা রকেট’ এর প্রশংসা করে উৎসবের শেষ দিনে কথা বলেছেন জুরিরা। শুধু তাই নয়, চলচ্চিত্র উৎসবের অফিশিয়াল ওয়েব সাইটে ছবিটি নিয়ে ছাপা হয়েছে একটি রিভিউ। ল্য মনতেন নামের একজন ‘কমলা রকেট’ এর রিভিউটি লিখেছেন। যেখানে সমাজের বাস্তব চিত্র প্রতীকি ভাবে সিনেমার পর্দায় তুলে ধরা হয়েছে বলে উল্লেখ করেন তিনি। ছবিটির নির্মাণশৈলীতেও মুগ্ধতার কথা জানানো হয়। শুধু তাই নয়, ছবিটির প্রতিটি দৃশ্য ধরে ধরে নিঁখুত ভাবে আলোচনা করেন রিভিউকারী। কথা বলেন ছবিটির প্রতিটি শট, চরিত্রের বৈশিষ্ঠ্য ও পুরো কন্টেন্ট নিয়ে। এরকম চলচ্চিত্র নির্মাণ আগামি দিনের চলচ্চিত্রের জন্য আশাব্যঞ্জক বলেও মনে করেন ল্য মনতেন।

গেল বছর মুক্তিপ্রাপ্ত বাংলাদেশের অন্যতম আলোচিত চলচ্চিত্র ‘কমলা রকেট’। দেশে প্রশংসিত হওয়ার পাশাপাশি ছবিটি বিভিন্ন দেশের আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবগুলোতেও বেশ দাপট দেখিয়েছে। এই ছবির জন্যই শ্রীলঙ্কায় ‘বেস্ট ডেব্যু ডিরেক্টর’ এর পুরস্কার জিতে নিয়েছেন নির্মাতা মিঠু।


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন