বিনোদন

৪৫ বছর পূর্তি শিল্পকলা একাডেমীর

বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি প্রতিষ্ঠা করা হয় ১৯৭৪ সালের ফেব্রুয়ারির ১৯ তারিখে। বিশেষ আইনে দেশীয় সংস্কৃতি, কৃষ্টির উন্নয়ন, ঐতিহ্য সংরক্ষন ও প্রসারে শুরু থেকেই দারুণভাবে কাজ করে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। বাংলাদেশের সকল জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে শিল্পকলার চর্চা ও বিকাশে এটি প্রতিষ্ঠা করেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

শিল্পকলার ৪৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে একাডেমির সকল বিভাগ ও শাখার কার্যক্রমের সপ্তাহব্যাপী প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়। মঙ্গলবার বেলা ৩ টায় জাতীয় চিত্রশালার ১ নম্বর গ্যালারীতে প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী।

এরপর বিকেল পাঁচটায় জাতীয় নাট্যশালার লবিতে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির যন্ত্রশিল্পীদের পরিবেশনায় পিয়ানো ও মিউজিক্যাল অর্কেস্ট্রা পরিবেশিত হয়। শুরুতে একাডেমির কার্যক্রমের একটি তথ্যচিত্রও পরিবেশিত হয়।

অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির অ্যাক্রোবেটিক দল পরিবেশন করে অ্যাক্রোবেটিক ক্যাপ ডান্স, চয়েন থিয়ান, রিং ডান্স, সাউদিয়াও, ল্যাডার ব্যালান্স, এরিয়েল, পাইপ ব্যালান্স ও হাই সাইকেল। ‘আনন্দলোকে মঙ্গলালোকে’ গানের কথায় সমবেত সংগীত পরিবেশন করে শিশুদল।

সমবেত নৃত্য ‘আকাশ ভরা সূর্য তার ‘ ও ‘আমার ঘর খানায় কে’ গানের কথায় বাউল সংগীত পরিবেশন করে শিল্পকলা একাডেমির শিল্পীবৃন্দ। এম আর ওয়াসেক এর পরিচালনায় ‘একুশে একুশে’ ও ‘চলো যাই এগিয়ে’ গানে এবং অনিক বোস এর পরিচালনায় ‘বসন্ত বাতাসে সইগো’ গানেও নৃত্য পরিবেশন করা হয়। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনায় ছিলেন তামান্না তিথি।


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন