বিনোদন

বাংলাদেশে আসছেন কলকাতার জনপ্রিয় লোক গানের শিল্পী পৌষালী ব্যানার্জি!

ক্রাউন মিউজিকের আমন্ত্রনে আগাষ্ট মাসের শেষভাগে বাংলাদেশে আসছেন কলকাতার জনপ্রিয় লোক গানের শিল্পী পৌষালী ব্যানার্জি। এ সময়ে তিনি বেশ কয়েকটি অডিও এলবামের পাশাপাশি চলচ্চিত্রে প্লেব্যাকসহ বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেলে লাইভ অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন।

পৌষালী ব্যানার্জি’র আদি-পৈত্রিক নিবাস বাংলাদেশে। তাঁর পূর্ব পুরুষদের বাড়ী মুন্সিগঞ্জ জেলার বিক্রমপুরে। তাঁর পরিবারের সদস্যরা ঐতিহ্যগতভাবেই সঙ্গীতপ্রেমী। পৌষালী নিজেও শান্তিনিকেতন থেকে শাস্ত্রীয় সঙ্গীতে উচ্চতর শিক্ষালাভ করেছেন।
ভারতের একটি টেলিভিশন চ্যানেলের সঙ্গীত বিষয়ক রিয়েলিটি শো ‘সারেগামাপা’ এর মাধ্যমে পৌষালী শ্রোতাদের নজর কাড়েন। তিনি নিয়মীতভাবেই লালন ফকির, হাসন রাজা, রাধা রমন, দূরবীন শাহ্‌, উকিল মুন্সী, শাহ্‌ আব্দুল করিমসহ বাংলাদেশের বিভিন্ন কালজয়ী লোক গীতিকবিদের গান গাইতেন। সম্প্রতি বাংলাদেশী অডিও প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ক্রাউন মিউজিক তাঁর সাথে বেশ কয়েকটি মৌলিক লোক গানের বিষয়ে কথাবার্তা চুড়ান্ত করেছে। গান গুলোর কথা ও সুর শোয়েব চৌধুরীর।

বাংলাদেশে আসার ব্যাপারে উচ্ছসিত পৌষালী ব্যানার্জি বলেন, “আমার পূর্ব পুরুষদের বাস বাংলাদেশের বিক্রমপুরে। সেখানে যাওয়ার সুযোগ পেয়ে আমি ভীষণ আনন্দিত। তাছাড়া বাংলা লোকগানের জন্মভূমিই হচ্ছে বাংলাদেশ। আমি যত অনুষ্ঠানেই এখন যাই সেখানেই তো বাংলাদেশী লালন ফকির, হাসন রাজা, রাধা রমন, দূরবীন শাহ্‌, উকিল মুন্সী, শাহ্‌ আব্দুল করিমসহ অন্যদের গান করছি। যদিও সেগুলো আমার মৌলিক গান নয়। এবার আমি আমার জন্য লেখা এবং সুর করা কয়েকটি লোকগান গাইবো। গানগুলোর গীতিকার এবং সুরকার শোয়েব চৌধুরী। আমি নিশ্চিত এই গানগুলো শ্রোতাদের হৃদয় ছুঁয়ে যাবে। তাছাড়া আমি ওনার লেখা ও সুর করা আগের গানগুলো শুনেছি। খুবই ভালো লেগেছে গানগুলো।

পৌষালীর জন্য লেখা ও সুর করা গানগুলো সম্পর্কে গীতিকার-সুরকার শোয়েব চৌধুরী বলেন, ইউটিউবে পৌষালী’র একটা গান শোনেই আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম ওর জন্য গান লিখবো। তারপর গানগুলো লেখা হলো – সুরও হলো। যেহেতু ওর জন্যেই লিখেছি, তাই এগুলোর মা হচ্ছে পোষালী। আমি বিশ্বাস করি পৌষালী ব্যানার্জি সন্তানতুল্য ওই গানগুলোকে ওর মায়াবী কন্ঠের যাদুর পরশ দিয়ে কালজয়ী করে তুলবে। এ গানগুলোর মাধ্যমেই যুগের-পর-যুগ টিকে থাকবে পৌষালী ব্যানার্জি’র অস্তিত্ব।

তিনি আরো বলেন, যেকোন গানের ক্ষেত্রেই শিল্পীর সাথে যদি গীতিকার-সুরকারের মনের মিল না হয় তাহলে সে গান কখনোই চিরস্থায়ী হতে পারেনা। পৌষালী ব্যানার্জি কেবলমাত্র একজন কন্ঠশিল্পী নয়, সে সঙ্গীতের পুজারী। আমি ভীষণ আনন্দিত যে ও আমার গানগুলো গাইতে যাচ্ছে।

 

 

দেশরির্পোট/জিএসবি


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন