বিনোদন

‘বিমূর্ত চিন্তা’ নাদিয়া-তানভীরের

ট্র্যাফিক জ্যাম শহুরে সভ্যতার নিউ এডিশন। এই যন্ত্রনা সহ্য করতে হয়নি এমন মানুষ ঢাকা শহরে নেই বললে ভুল হবে না। প্রায় অসহনীয় এই জ্যাম যন্ত্রণা থেকে মুক্তি পেতে যদি এমন কোন জুতো আবিষ্কার করা যায়, যে জুতো পড়লে মানুষ উড়তে পারবে, তাহলে কেমন হতো? ব্যাপারটা কল্পনা করে পাঠক নিশ্চয়ই অবাক হচ্ছেন? আশ্চর্য্য হবার কিছু নেই, এমনই একটি বিষয়কে কেন্দ্র নির্মাণ করা হয়েছে ‘বিমূর্ত চিন্তা’ নামের ছয় পর্বের একটি ধারাবাহিক।

নাটকটি রচনা ও পরিচালনা করেছেন মৃত্তিক মিরাজ। ব্যতিক্রমধর্মী এই নাটকটি প্রযোজনা করেছেন এম এ আউয়াল। নাটকে প্রধান দুটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন তানভীর ও নাদীয়া নদী। আরও অভিনয় করেছেন কাজী উজ্জল, এলিনা শাম্মী, শামীম আহমেদ, ম্যাক তামিম, পাপড়ি, রনো, নন্দিত আনিস, মোল্ড-১ সাগর, মোল্ড-২ আরিয়ান, মি. মিতায়ানসহ আরও অনেকে।

নাটকের গল্প সম্পর্কে পরিচালক মৃত্তিক মিরাজ জানান, ‘বিমূর্ত চিন্তা’ নাটকের গল্প আবর্তিত হয়েছে ট্র্যাফিক জ্যাম থেকে মুক্তি পেতে বিজ্ঞানের নতুন আবিষ্কারকে কেন্দ্র করে। যন্ত্রকৌশলের মেধাবী ছাত্র দারায়াত “ফ্লাইং সু” নামক একটি উড়ন্ত বাহন আবিষ্কার করেন। এই আবিষ্কারকে কেন্দ্র করে শুরু হয়ে নিজ বন্ধুদের মধ্যে ষড়যন্ত্র। নাটকের এক পর্যায়ে দারায়াত নিখোঁজ হয়। এদিকে নায়িকা ফায়রুজ দারায়াতকে হারানোর শোকে সিজোফ্রেনিয়া রোগে আকান্ত হয়।

নির্মাতা সুত্রে জানা গেছে, আসন্ন ঈদে একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে নাটকটি প্রচারিত হবার কথা রয়েছে।


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন