বিনোদন

কলকাতার ‘কিডন্যাপ’ দেখছে না বাংলাদেশের দর্শক

কলকাতার সিনেমা ‘কিডন্যাপ’ বাংলাদেশে মুক্তি পেয়েছে গেল শুক্রবার । দেশের ৫০টি সিনেমা হলে চলছে ছবিটি। ওপার বাংলার নামী প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান সুরিন্দর  ফিল্মসের কাছ থেকে ছবিটি বাংলাদেশে আমদানি করেছে শাপলা মিডিয়ার কর্ণধার সেলিম খান।

কলকাতা থেকে বিনিময়ের মাধ্যমে আনা বেশিরভাগ ছবি বাংলাদেশে সাফল্য পায় না। একই অবস্থা দেখা গেল ‘কিডন্যাপ’র ক্ষেত্রেও। এই ছবিটিও বাংলাদেশের ‘দর্শক দেখছে না’। বাংলাদেশ সিনেমা হল বুকিং এজেন্ট সমিতি ও ঢাকার স্টার সিনে কমপ্লেক্স  কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে এমনটা জানা গেছে।

সিনে কমপ্লেক্স’র ম্যানেজারের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, প্রতিটি শোতে ‘কিডন্যাপ’ ছবির দর্শক খুবই কম। আসন সংখ্যা ফাঁকা থাকছে। এই ছবি প্রদর্শন করে প্রত্যাশা মোটেও পূরণ হলো না।

তবে এই ছবি যে ‘মোটেও ভালো চলছে না’ সেটা জানা গেল বুকিং এজেন্ট সমিতির সঙ্গে আলাপ করে। তারা বলেন, ছবি কেমন যাবে সেটা প্রথম দিনেই আমরা বুঝতে পারি। ‘কিডন্যাপ’ শুক্রবারেই ভালো যায়নি। তখনই টের পেয়েছি এই ছবি দর্শক দেখবে না। তাই হচ্ছে, মানুষ দেখছে না!

তাদের সাথে আরো কথা বলে জানা গেছে, প্রায় ৫০টির মতো  সিনেমা হলে চালানো হলেও সবখানেই একই অবস্থা। আমরা খোঁজ নিয়েছি, কোথাও ভালো যাচ্ছে এই খবর পাইনি। এখনো পর্যন্ত কোনো হল থেমে যাইনি। তবে ছবি ভালো চলছে না এটা নিশ্চিত।

মধুমতি সিনেমা হলের গেটম্যান বলেন, আরে ভাই, শাকিবের পুরান ছবি চালালেও এর চেয়ে ভালো চলে এবং দর্শকের মুখ দেখা যায়। তার ছবি আসলে এখানে এক-দেড়শ দর্শক সিনেমা দেখতে আসে। তাছাড়া এদিকে আমরা গেছে সপ্তাহে আব্বাসে দর্শকের মুখ দেখেছি। গত সপ্তাহে চলছিল নিরব অভিনীত ‘আব্বাস’, ১মদিন ছাড়া পুরো সপ্তাহেই দর্শক ছিল। তবে গত শুক্রবার দেবের ছবি মুক্তি পাওয়ার পর সিনেমা হলে দর্শক নেই। আসলে আমাদের দেশে কলকাতার হিরো বা কলকাতার বাংলা ছবি দর্শক দেখতে চায় না। তাছাড়া আমাদের ও মনে টানে না।

এদিকে এক দর্শকের সাথে কথা হয় তার নাম রুবেল তিনি এসছেন ধোলায়পাড় তেকে ছবি দেখতে তিনি বলেন, আরে ভাই, দেখতে এসেছিলাম ঐ নিরবের আব্বাস ছবি । অনেকদিন হয় আমি ছবি দেখি, বেশির ভাগ আমি শাকিবের ছবি ছাড়া তেমন একটা দেখি না।তবে নিরবের আব্বাস দেখে ভালো লাগছে ভেবে আবার ছবিটি দেখতে এসেছি। এখন দেখি দেবের ছবি চলছে। এসব সিনেমা হলে কেন দেখবো। দেব জিৎ হচ্ছে আমাদের দেশের ছোট পর্দার শিল্পী। তাদের টিভিতে দেখতেই ভালো লাগে, সিনেমা হলে নয়। এখানে দেখি শাকিব খানের ছবি আর মজা পেয়েছি আব্বাস। আব্বাস ছবিটি থাকলে ভালো হতো। এতো সুন্দর একটা ছবি নামিয়ে দেবের ছবি মুক্তি পেয়েছে, এটা বিরক্তিকর।

এখানে অনেকদিন ধরে এক মুরব্বি ব্লাক করছে তিনি জানালেন, সত্যি কথা বলতে আমাদের দেশের দর্শক কখনোই কলকাতার শিল্পীদের ভারতীয় ছবি পছন্দ করে না। তাদের ভাষা বা সমাজ আমাদের মতো নয়, দর্শক সিনেমা হলে আসে নিজের জীবন দেখতে। নিজের মতো কথা, নিজের মতো চলাফেরা দেখতে। কলকাতার ছবি আমাদের সিনেমা হলে কখনই চলে না। তার পরও কেন মুক্তি পায়, সেটাই রহস্য।


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন