সারাদেশ

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে হত্যা মামলার বাদীকে মামলা তুলে নেওয়ার হুমকি!

অনলাইন ডেস্ক:

কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলার তাঁতারকান্দি এলাকায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে বাঁধন রায়হান (১৪) নামে
কিশোরকে ক্রিকেট খেলার স্ট্যাম্প দিয়ে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে হত্যা করা হয়।আসামীগণ হলেন, আবুল কালাম আজাদ(৫৫), তার স্ত্রী ফাতেমা বেগম অন্তরা (৪৮) ও দুই ছেলে হৃদয় মিয়া, মুন্না মিয়া।
ঘটনাটি ঘটে গত ১৪ মে ২০১৪ইং সালের বুধবার বিকালে।
জানা যায়,পূর্ব শত্রুতার জের ধরে পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে বাঁধন রায়হান (১৪) কে ক্রিকেট খেলার স্ট্যাম্প দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করে আসামী আবুল কালাম আজাদ(৫৫), ফাতেমা বেগম অন্তরা(৪৮), হৃদয় মিয়া ও মুন্না মিয়া।

ভৈরব থানায় দায়েরকৃত (৫৮৫) নং জিডি তাং ১৪/১০/১৯ ইং সূত্রে জানা যায় বাদী মোছাঃ শিরিন বেগম(৪০), স্বামী- মোঃশহিদ হোসেন ১ থেকে ৪ নং আসামীগন বাদীর ছেলে বাঁধন রায়হানকে পরিকল্পিত ভাবে পিটিয়ে হত্যা করায় বাদী তাদের বিরুদ্ধে ভৈরব থানার মামলা নং ১৮ তাং ১৮/৫/১৪ ইং ধারা ৩০২/৫০৬ ও ১১৪ দঃবিঃ দায়ের করেন।

বিবাদীগণ ঘঠনাটিকে ধামাচাপা দিতে বিভিন্ন উচ্চ মহলে দৌড়ঝাপ করে ব্যর্থ হয়।

উক্ত মামলা বর্তমানে বিজ্ঞ আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। উক্ত মামলায় আসামী গন বিজ্ঞ আদালত থেকে জামিনে এসে বাদিগণদের কে ভয়-ভীতি হুমকি প্রদান করছে মামলা উঠিয়ে নেওয়ার জন্য। বাদীগনরা নিজেদের নিরাপত্তা স্বার্থে ১৯ নভেম্বর ২০১৪ সালে ভৈরব থানায় জিডি করেন। জিডি নং ৭৭৭।

তার পর থেকে বিভিন্ন সময় বিবাদী গন বাঁদীকে ভয়-ভীতি ও খুন-জখমের হুমকি প্রদানসহ অত্যাচার ও মানসিক চাপের মধ্যে রাখতো।বিবাদী গন প্রকাশ্যে বলে বেড়ায় একটি খুন করলে যা হবে দুই-তিনটা খুন করলে তাই হবে। বাদী মামলা না উঠিয়ে নিলে বা মামলায় সাক্ষী প্রমাণ দিতে গেলে আসামীগন পুনরায় বাদী ও বাদীর পরিবারের অন্য সদস্যদের কে খুন করার হুমকি প্রদান করে।

উক্ত মামলায় এক নং স্বাক্ষী মর্তুজা আলম (৩৮) পিতা মৃত- ধন মিয়া সাং- তাঁতারকান্দি থানা ভৈরব জেলা কিশোরগঞ্জ, বিজ্ঞ আদালতে আসামিদের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য প্রদান করায় ১৪ অক্টোবর ২০১৯ ইং বিকেল সাড়ে পাঁচটার সময় উপরোক্ত আসামীগণ বাদীর বাড়ির সামনে এসে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ এবং হত্যার হুমকি প্রদান করে। এই সময় সাক্ষী মোঃ মিজান(৪৬), মোঃ নজরুল ইসলাম (৬০) উপস্থিত ছিলেন।


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন