স্বাস্থ্য

ঘরে মজুত ৫৫ লাখ টাকা, কী করবে, না বুঝে রমণীর আত্মহত্যা!

তিন মাস আগে ১২ একর জমি বেচে ৫৫ লাখ টাকা পেয়েছেন। একটা জমি কিনবেন বলে টাকাটা ব্যাঙ্কে না ফেলে ঘরেই রেখে দেন। খবর পান ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী মঙ্গলবার রাতেই ৫০০-১০০০ টাকার নোট বাতিল করে দিয়েছেন। কিন্তু সেই নোট ব্যাঙ্কে জমা দিয়ে যে পরে ফিরে পাওয়া যাবে, সেটাই জানা ছিল না তেলঙ্গানার কৃষক রমণী কে বিনোভা আর তাঁর স্বামী উপেন্দ্রিয়ার। দুজনেই গ্রামের মানুষ, পড়াশোনাও বিশেষ করেননি। প্রধানমন্ত্রীর সেদিনের ঘোষণামতো তাঁরা বিশ্বাস করে বসেন, ঘরে মজুত ৫০০- ১০০০-এর নোটগুলি এখন ‘কাগজের টুকরো’! ওই টাকা ঘরে রেখে আর কী হবে? ওর তো কোনও দামই নেই। হতাশ, চরম বিভ্রান্ত বিনোভা গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

পুলিশ জানিয়েছে, তেলঙ্গানার মেহবুবনগরের শানিগাপুরম গ্রামের বাসিন্দা ৫৫ বছরের বিনোভা তিন মাস আগে ১২ একর জমি বেচে ৫৫ লাখ টাকা পেয়েছেন। কিন্তু একটা জমি কিনবেন বলে টাকাটা ব্যাঙ্কে না ফেলে ঘরেই রেখে দেন। গতকালই বিনোভার কানে খবর যায়, সরকার ৫০০-১০০০ টাকার নোট বাতিল করেছে। কী করবেন এখন এত টাকা নিয়ে, বিভ্রান্ত হয়ে যান তিনি। টাকাটা ব্যাঙ্কে না দিয়ে ঘরে ফেলে রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য স্বামীকে দোষ দেন তিনি। দুজনের তুমুল ঝগড়া হয়। তারপরই চরম পদক্ষেপ করেন বিনোভা।

দম্পতির ছেলে শ্রীনিবাস বলেছেন, সরকারি ঘোষণার কথা জানার পর ঝগড়া হয় বাবা-মায়ের। খুব ভেঙে পড়েছিল মা, সিলিং ফ্যানে ঝুলে আত্মহত্যা করে। পুলিশ মামলা দায়ের করে তদন্তে নেমেছে।


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন