লাইফষ্টাইলস্বাস্থ্য

বলিরেখা ও চোখের কোণে ভাঁজ

সবাই তরুণ বা যৌবনদীপ্ত থাকতে চায়। এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে মুখম-লের চারপাশে কুঞ্চন বা বলিরেখার (ঋধপব ডৎরহশষব) সৃষ্টি হয়, যা সবচেয়ে বেশি দেখা যায় কপাল ও চোখের চারপাশে। একে বলা হয় ক্রোফিট বলিরেখা বা চোখের কোণে ভাঁজ।বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে আমাদের ত্বকের ভেতরে ডার্মিস স্তর পাতলা হতে থাকে এবং কোলাজেন ও অন্যান্য ফাইরের পরিমাণ কমতে থাকে। এতে ত্বক ঢিলে হয়ে যায়, ভাঁজ পড়তে শুরু করে। বয়সের সঙ্গে সঙ্গে ত্বকের শুষ্কতা বাড়ে, যা ভাঁজের জন্য কিছুটা দায়ী। এ ছাড়া অতিরিক্ত রোদে বা সূর্যালোকে কাজ করা, ধূমপান, পরিবেশ দূষণ, পারিবারিক ইতিহাস, মানসিক চাপ, অতিবেশি ভেজাল জাতীয় খাবার খাওয়ার কারণে ত্বকে ভাঁজ সৃষ্টি হয়ে থাকে।

করণীয় : মুখম-লে বয়সের ভাঁজ, বিশেষ করে চোখের কোণের কুঞ্চনরেখা দূর করতে প্রথমেই মানসিক চিন্তামুক্ত থাকতে হবে। ত্বকের ক্ষয়রোধ করতে প্রচুর পরিমাণে পানি ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্টযুক্ত খাবার ও ফলমূল খেতে হবে। এ জন্য খাদ্যতালিকায় প্রচুর ভিটামিন-এ, সি, ই, বি-৩ সমৃদ্ধ খাবার রাখতে হবে। প্রতিদিন নিয়ম করে শাকসবজি, দুধ ও পুষ্টিকর খাবার খেতে হবে। কারণে অকারণে কপাল কোঁচকানো বাদ দিতে হবে এবং সব সময় প্রফুল্ল থাকতে হবে।বর্তমানে ত্বকের ভাঁজের চিকিৎসায় রেটিনয়েড ক্রিম, বটুলিনাম টক্সিন, লেজার, কেমিক্যাল পিলিং, ফিলারসহ বিভিন্ন পদ্ধতি ব্যবহৃত হচ্ছে। তবে এ ক্ষেত্রে চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া কোনোটাই গ্রহণ করা উচিত নয়। তাতে হিতে বিপরীত হতে পারে।লেখক : চর্ম, যৌন ও অ্যালার্জি রোগ বিশেষজ্ঞসিনিয়র কনসালট্যান্ট ও ব্যবস্থাপনা পরিচালকআল-রাজি হাসপাতাল, ফার্মগেট, ঢাকা০১৭১৫৬১৬২০০, ০১৮১৯২১৮৩৭৮


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন