সারাদেশ

আশুলিয়ায় ডাকাতিতে নিহত ১

 মশিউর রহমান, সাভার প্রতিনিধি: সাভারের আশুলিয়ায় অস্ত্রের মূখে জিম্মী করে মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। এ সময় বাঁধা দিলে ডাকাতদের গুলিতে আবুল সরকার নামে এক বাড়ির মালিক নিহত হয়েছেন এবং আহত হয়েছেন নিহতের ছোট ভাই মকবুল সরকার ও ভাবী বেদেনা বেগমসহ পরিবারের আরও দুই জন। পরে তাদেরকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। শনিবার  রাত পৌঁনে তিনটার দিকে আশুলিয়ার দূর্গাপুর এলাকায় হালিম সরকারের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায়  এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

মকবুল সরকার জানান, শনিবার রাত  পৌঁনে ৩টার দিকে বাড়ির দেয়াল টপকে বারান্দার গ্রীল কেটে অস্ত্রে সজ্জিত ১০ থেকে ১২ জন ডাকাত তার বাবা হালিম সরকারের রুমে ঢুকে। তাদেরকে অস্ত্রের মূখে জিম্মি বাড়ির সবাইকে একটি রুমের মধ্যে বন্দী করে রাখে। পরে তাদের লাইসেন্সকৃত বন্দুক, নগদ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার লুট করে ডাকাতরা। এরপরে
মোবাইল ফোনে বিষয়টি গ্রামবাসীকে জানানো হলে এলাকার মসজিদে ডাকাতির ঘটনার কথা জানিয়ে মাইকিং করা হয়। এসময় এলাকাবাসী ডাকাতের কবলে থাকা বাড়ি ঘিরে ফেলে। পরে তার বড় ভাই আবুল সরকার ও তিনি ডাকাতদের খুঁজতে থাকেন। এক পর্যায়ে প্রাচীরের এক কোণায় তিন ডাকাতকে সশস্ত্র অবস্থায় দেখতে পান তারা।
এসময় আবুল সরকার সামনে এগিয়ে এক ডাকাতকে পেছন থেকে জড়িয়ে ধরে চিৎকার করতে থাকেন। এসময় অপর এক ডাকাত তার ভাইয়ের পেটে গুলি করে ও তাকে মাথায় আঘাত করে পালিয়ে যায়।  আবুল সরকারকে সাভার এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।
এ ব্যাপারে আশুলিয়া থানার ওসি (তদন্ত) জাবেদ মাসুদ জানান, এঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। একই সাথে অপরাধীদের আটক করতে পুলিশের একাধিক টিম কাজ করছে।
এসবি


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন