সারাবিশ্ব

ইইউর অনুমোদন পেল ব্রেক্সিট চুক্তি!

ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) থেকে যুক্তরাজ্যের বেরিয়ে যাওয়ার চুক্তি বেক্সিটে অনুমোদন দিয়েছেন সংগঠনটির নেতারা। রোববার বেলজিয়ামের রাজধানী ব্রাসেলসে ২৭ সদস্যের এই সংগঠনের এক বৈঠকে আনুষ্ঠানিকভাবে বেক্সিটে অনুমোদন দেয়া হয়। ইউরোপীয় কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট ও প্রধান কর্মকর্তা ডোনাল্ড টাস্ক এক টুইট বার্তায় এ ঘোষণা দিয়েছেন।

ইইউ থেকে যুক্তরাজ্যের বেরিয়ে যাওয়ার এই চুক্তি নিয়ে ব্রাসেলসে প্রায় ঘণ্টাব্যাপি আলোচনা হয়। একেবারে শেষ মুহূর্তে এসে জিব্রাল্টার নিয়ে স্পেনের উদ্বেগ প্রত্যাহারের পর এই চুক্তিতে অনুমোদন দেয়া হবে বলে শনিবার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন ডোনাল্ড টাস্ক।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি বলছে, এই চুক্তি এখন ব্রিটেনের পার্লামেন্টে অনুমোদন পেতে হবে; যদিও দেশটির অনেক মন্ত্রী ব্রেক্সিট চুক্তির বিরোধীতা করেছেন।

ব্রেক্সিট ইস্যুতে ২০১৬ সালে ব্রিটেনে গণভোট অনুষ্ঠিত হয়। এরপর ইউরোপীয় ইউনিয়নের নেতাদের সঙ্গে প্রায় ১৮ মাস ধরে আলোচনা চলার পর ব্রেক্সিট চুক্তি ইইউতে অনুমোদন পেল। ২০১৯ সালের ২৯ মার্চ ইইউ থেকে বেরিয়ে যাওয়ার কথা রয়েছে ব্রিটেনের।

ডিসেম্বরের শুরুতে ব্রিটেনের পার্লামেন্টে ব্রেক্সিট ইস্যুতে ভোটাভুটি হওয়ার কথা রয়েছে। তবে পার্লামেন্টে এই চুক্তি অনুমোদন পাবে কি-না সেটির নিশ্চয়তা নেই। দেশটির প্রধান বিরোধী দল লেবার পার্টি, লিব ডেমস, এসএনপি, ডিইউপি ও অন্যান্য অনেক রক্ষণশীল এমপি ব্রেক্সিট চুক্তির বিরোধীতা করে আসছে। ফলে পার্লামেন্টের ভোটাভুটিতে এসব দল ব্রেক্সিট চুক্তির বিপক্ষে অবস্থান নিতে পারে।

চুক্তির পক্ষে অবস্থান নিতে দেশটির জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে। তার মেয়াদে এ যাবৎকালে সেরা চুক্তি হতে যাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।

ইইউর প্রধান আলোচক মাইকেল বার্নিয়ার বলেছেন, এই চুক্তির প্রথম পর্যায়ের কাজ শেষ হয়েছে। এখন ‘উচ্চাভিলাষী এবং অভূতপূর্ব অংশীদারিত্বের’ জন্য ইইউ এবং ব্রিটেনের একযোগে কাজ করা উচিত। এখন সময় এসেছে প্রত্যেকের দায়িত্ব নেয়ার।

ব্রেক্সিট চুক্তির অনুমোদনের পর ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জ্যঁ ক্লদ জাঙ্কার বলেছেন, এটি একটি দুঃখের দিন। ব্রেক্সিট একটি ট্র্যাজেডি এবং এটি উভয়পক্ষের জন্যই কঠিন।

সূত্র : বিবিসি, আলজাজিরা।

 


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন