খেলা

মিতালির বিরুদ্ধে ‘ব্ল্যাকমেলিংয়ের’ অভিযোগ!

মিতালি রাজ ইস্যু নিয়ে ভারতীয় নারী ক্রিকেটে চলছে তোলপাড়। সদ্য শেষ হওয়া নারী টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপ শেষে দেশে ফিরেই কোচের বিরুদ্ধে তোপ দাগিয়েছিলেন মিতালি। কোচ রমেশ পাওয়ারের বিরুদ্ধে ‘বৈষম্যের’ অভিযোগ এনে ইমেইল করেছিলেন ভারতীয় বোর্ডকে । এর প্রেক্ষিতে রমেশকে ডেকে পাঠায় বোর্ড। আর বোর্ডের মুখোমুখি হয়ে উল্টো মিতালির বিরুদ্ধে ‘ব্ল্যাকমেলিংয়ের’ অভিযোগ করেছেন তিনি।

নারী বিশ্ব টি-টুয়েন্টির সেমি ফাইনালে একাদশের বাইরে রাখা হয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সবচেয়ে বেশি রান করা এই নারী ক্রিকেটারকে। ইংল্যান্ডের কাছে ম্যাচটি হেরে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নেয় ভারত। তখন মুখ না খুললেও দেশে ফিরে বোমা ফাটান মিতালি।

দেশে ফিরে বিসিসিআইর প্রধান নির্বাহী রাহুল জোহরি ও জিএম (ক্রিকেট অপারেশন্স) সাবা করিমের কাছে একটি মেইল করেন মিতালি। ইমেইলে তিনি জানান, কোচ রমেশ পাওয়ার তাকে অপমান করেছে। অভিযোগ তোলেন বিসিসিআইয়ের কমিটি অব অ্যাডমিনিস্ট্রেটরসের (সিওএ) সদস্য ও ভারতের নারী দলের সাবেক অধিনায়ক ডায়না এডুলজির বিপক্ষেও। মিতালির অভিযোগ, রমেশ ও এডুলজি মিলে তাকে ধ্বংস করার চেষ্টা করছেন।

এদিকে মিতালির অভিযোগের প্রেক্ষিতে রমেশকে ডেকে পাঠায় ভারতীয় বোর্ড। সেখানে বিষয়টি নিয়ে বিস্তারিত রিপোর্ট দিয়েছেন রমেশ। ওই রিপোর্টে তিনি লিখেছেন, ‘আশা করব, মিতালি ব্ল্যাকমেল করা বন্ধ করবে, কোচদের চাপে ফেলা বন্ধ করবে। ও সব সময় টিমের আগে নিজের স্বার্থ দেখে।’

বোর্ডের এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে ভারতীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, রমেশ স্বীকার করেছে, মিতালির সঙ্গে তার পেশাদার সম্পর্ক ভাল ছিল না। কারণ, তার মতে, মিতালি নাকি খুবই নির্লিপ্ত ছিল ও তাকে নিয়ন্ত্রণ করা মোটেই সহজ ছিল না।

 

সিএসবি


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন