বিনোদন

অনলাইনে পাঁচশ থেকে হাজার টাকার পোশাক অর্ডার করেন কাজলঃ অজয়!

শোবিজের তারকাদের প্রতি সারাধারন মানুষের কৌতুহলের শেষ নেই । আর সেটা হয় যদি বাইরের দেশের তারকা। তাদের সব কিছুতে যেন জানার জন্য মুখিয়ে থাকে ভক্তরা।

তাদের ধারণা বলিউডের তারকার স্বভাবতই খুব দামি পোশাক পরে। কিন্তু এই ধারণা ভুল প্রমাণিত করলেন অজয় দেবগান। জানালেন, ‘তার স্ত্রী কাজল পাঁচশ থেকে হাজার টাকার পোশাকও পরেন।

সম্প্রতি স্টার ওয়ার্ল্ড চ্যানেলের অফিশিয়াল ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট থেকে ‘কফি উইথ করণ’-এর একটি ভিডিও প্রোমো শেয়ার দেওয়া হয়। সেখানেই অজয়-কাজলের বিভিন্ন বিষয় উঠে আসে।

সংবাদমাধ্যম মুম্বাই মিরর জানিয়েছে, করণ জোহর কাজলকে তার কেনাকাটার অভ্যাস সম্পর্কে জিজ্ঞেস করেছিলেন। করণ জানতে চেয়েছিলেন, ডিজাইনার লেবেলে না গিয়ে কেন কাজলের এত পছন্দ সান্তা ক্রুজ মার্কেট?

কাজল জানান, শুধু বিশেষ কোনো ইভেন্ট বা অনুষ্ঠানে গেলে তিনি ডিজাইনার ব্র্যান্ড পরেন। না হলে সাধারণ পোশাকেই স্বাচ্ছন্দ্য তার। এ-ও জানা যায়, কাজল খুব মিতব্যয়ী এবং সস্তা দামের পণ্য দেখলেই বেশি উত্তেজিত হন।

অজয় বলেন, কাজল এখন শপিং মার্কেটে খুব একটা যান না। অনলাইনেই কেনাকাটা সেরে ফেলেন। আর ৫০০ থেকে হাজার ১২০০ টাকা দামের মধ্যে পেলেই নাকি অর্ডার দিয়ে দেন এ অভিনেত্রী।

অজয় আরও বলেন, প্রতিদিন কমপক্ষে সাত থেকে আটটি পার্সেল তাদের বাড়িতে আসে। অনলাইনে কোনো কিছুর দাম সস্তা দেখলেই নাকি অজয়কে কাজল বলেন, ‘এই দেখ, এইটার দাম কত; মাত্র ৬০০ রুপি।’

অজয়ের পাশে বসে কাজল বলেন, ‘যেসব জিনিস থেকে কিছু ফেরত পাওয়া যায় না, সেসব দাম দিয়ে কেনার চাইতে আমার টাকা ফিক্সড ডিপোজিট করে রাখাই ভালো।’

এর পর অজয় বলেন, মাঝেমাঝে তাঁর ইচ্ছে হয় প্রিয় স্ত্রীকে দামি কিছু উপহার দিতে, কিন্তু কাজলের জন্যই তাকে দমে যেতে হয়।

 

সাধারণ মানুষের ধারণা বলিউডের তারকার স্বভাবতই খুব দামি পোশাক পরে। কিন্তু এই ধারণা ভুল প্রমাণিত করলেন অজয় দেবগান। জানালেন, ‘তার স্ত্রী কাজল পাঁচশ থেকে হাজার টাকার পোশাকও পরেন।

সম্প্রতি স্টার ওয়ার্ল্ড চ্যানেলের অফিশিয়াল ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট থেকে ‘কফি উইথ করণ’-এর একটি ভিডিও প্রোমো শেয়ার দেওয়া হয়। সেখানেই অজয়-কাজলের বিভিন্ন বিষয় উঠে আসে।

সংবাদমাধ্যম মুম্বাই মিরর জানিয়েছে, করণ জোহর কাজলকে তার কেনাকাটার অভ্যাস সম্পর্কে জিজ্ঞেস করেছিলেন। করণ জানতে চেয়েছিলেন, ডিজাইনার লেবেলে না গিয়ে কেন কাজলের এত পছন্দ সান্তা ক্রুজ মার্কেট?

কাজল জানান, শুধু বিশেষ কোনো ইভেন্ট বা অনুষ্ঠানে গেলে তিনি ডিজাইনার ব্র্যান্ড পরেন। না হলে সাধারণ পোশাকেই স্বাচ্ছন্দ্য তার। এ-ও জানা যায়, কাজল খুব মিতব্যয়ী এবং সস্তা দামের পণ্য দেখলেই বেশি উত্তেজিত হন।

অজয় বলেন, কাজল এখন শপিং মার্কেটে খুব একটা যান না। অনলাইনেই কেনাকাটা সেরে ফেলেন। আর ৫০০ থেকে হাজার ১২০০ টাকা দামের মধ্যে পেলেই নাকি অর্ডার দিয়ে দেন এ অভিনেত্রী।

অজয় আরও বলেন, প্রতিদিন কমপক্ষে সাত থেকে আটটি পার্সেল তাদের বাড়িতে আসে। অনলাইনে কোনো কিছুর দাম সস্তা দেখলেই নাকি অজয়কে কাজল বলেন, ‘এই দেখ, এইটার দাম কত; মাত্র ৬০০ রুপি।’

অজয়ের পাশে বসে কাজল বলেন, ‘যেসব জিনিস থেকে কিছু ফেরত পাওয়া যায় না, সেসব দাম দিয়ে কেনার চাইতে আমার টাকা ফিক্সড ডিপোজিট করে রাখাই ভালো।’

এর পর অজয় বলেন, মাঝেমাঝে তার ইচ্ছে হয় প্রিয় স্ত্রীকে দামি কিছু উপহার দিতে, কিন্তু কাজলের জন্যই তাকে দমে যেতে হয়।

 

সিএসবি


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

Tags

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন