বিনোদন

নির্বাচনের পরে পুরোদমে কাজ শুরু হবে ‘নতুন মুখের সন্ধানে’

সেপ্টেম্বর বেশ জাকজমকভাবে রাজধানীর পাঁচতারা হোটেলে উদ্বোধন করা হয় ‘নতুন মুখের সন্ধানে’ প্রতিযোগিতার আনুষ্ঠানিক যাত্রা। সেদিন প্রথম প্রতিযোগী হিসেবে প্রতীকী আবেদন করেছিলেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

চলচ্চিত্রের শিল্পীই সংকট দূর করার জন্য দীর্ঘ ২৭ বছর পর বংলাদেশ চলচ্চিত্রের পরিচালক সমিতি এ উদ্যোগ নেয়। কিন্তু, উদ্বোধন হলেও বাস্তব চিত্রটা ভিন্ন, এখনও মূল প্রতিযোগীতাই শুরু করতে পারেননি আয়োজকরা। মাঝে শোনা গেছিলো অক্টোবর পুরোদমে মূল কার্যক্রম শুরু হবে তা আর হয়ে উঠেনি। অনুষ্ঠানের পর দুটো মাস চলে গেছে এখনও এটার কোন উদ্যোগ দেখা যাচ্ছে না।

তাহলে কি এটার আলোর মুখ দেখবে না ? এ ব্যাপারে পরিচালক সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার বলেন, অবশ্যই আলোর মুখ দেখবে । এটা নিয়ে সন্দেহের কিছু নাই । অনেক তরুণ প্রতিভা এই প্রতিযোগিতায় নিজেকে প্রমাণ করতে মুখিয়ে আছেন। তাদের হতাশ করতে চাই না।

তিনি আরও বলেন, বর্তমানে আমরা স্পন্সর প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে কথা বলছি, তাদের সাথে সব বিষয়ে ফাইনাল হয়ে গেলে এ মাসেই রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া শুরু করে দিতে পারি। তারপর নির্বাচন গেলে জানুয়ারি থেকে পুরোদমে কাজ শুরু হবে।

প্রসঙ্গত, ১৯৮৪ সালে ‘নতুন মুখের সন্ধানে’ কার্যক্রম শুরু হয়েছিল। এরপর ১৯৮৮ ও ১৯৯০ মোট তিনবার এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। এই প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হয়েই বাংলা চলচ্চিত্রে এসেছিলেন প্রয়াত সুপারস্টার নায়ক মান্না। নিজেকে প্রতিষ্ঠা করেছিলেন অ্যাকশন ছবির কিং হিসেবে।

শুধু মান্না নন, এই প্রতিযোগিতার মাধ্যমেই বাংলা চলচ্চিত্র পেয়েছিল সোহেল চৌধুরী, অমিত হাসান, আমিন খান, চিত্রনায়িকা দিতি, খালেদা আক্তার কল্পনা, রাশেদা চৌধুরী ও খল অভিনেতা মিশা সওদাগরের মতো তারকাদের। চলচ্চিত্রে যাদের প্রত্যেকেরই রয়েছে গুরুত্বপূর্ণ অবদান।

 


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন