বিনোদন

জসীমউদ্দীনের শ্রদ্ধা জানিয়ে নকশি কাঁথা এবার বড় পর্দায়

পল্লীকবি জসীমউদ্দীনের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে নকশী কাঁথার মাঠ অবলম্বনে ভারত ও বাংলাদেশের চলচ্চিত্র ইতিহাসে এই প্রথমবার তৈরি হতে চলেছে ‘নকশী কাঁথার খোঁজে‘। রাহুল ফিল্ম এ্যান্ড টেলি প্রোডাকশন নিবেদিত সেখ আখতার ও গোপাল সরকারের প্রযোজনায় ছবিটির পরিচালনা করছেন হৃষীকেশ মন্ডল। ছবির কাহিনি পরিচালকেরই। চিত্রনাট্য লিখেছেন শাহীন আখতার।

ছবির গল্পে দেখা যাবে, আহমেদ, অরিত্র, সম্প্রতি এবং সন্দীপ ও আফসানা সবাই যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের পাস আউট। কয়েক বছর পর সবাই একসাথে তাদের বন্ধু আহমেদের বাড়ি ঘুরতে যাওয়ার প্ল্যান করে। সেই মতো তারা ভিসা নিয়ে ওপার বাংলায় রওনা দেয় জানুয়ারী মাসে । হুম, আহমেদের বাড়ি বাংলাদেশের ফরিদপুরে। কিন্তু সে ঢাকায় একটা ফ্ল্যাট নিয়ে থাকে। সে সদ্য একটা চাকরিতেও জয়েন করেছে। আহমেদ তার কলকাতার পুরনো বন্ধুদের পেয়ে খুবই খুশি। জানালো এই জানুয়ারী মাসেই পল্লী কবি জসীম উদ্দীনের জন্ম মাস উপলক্ষে একটা মেলা হয় এখানে। কবির কাজ কর্মে স্মৃতি বিজড়িত এই মেলা। সবাই রাজিও হয়, আর বেরিয়েও পরে।

ওদিকে আফসানা আর সন্দীপের মধ্যে একটা সময় ভালোবাসা থাকলেও, উভয়ের কেরিয়ারগত সমস্যায় সেই প্রেম দানা বাঁধতে সমস্যা দেখা দেয়। চিত্র পরিচালক হওয়ার স্বপ্নে দৌড়াতে চায় সন্দীপ। কিন্তু, আফসানার বাড়িতে বিয়ের প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে। সেখানে কখনোই তারা ভিন্ন ধর্মের হলেও, একজন স্ট্রাগলার ফিল্ম মেকার হবু স্ত্রী হওয়ার জন্য অপেক্ষার ধৈর্য্য নেই।যাইহোক, তারা সবাই মেলায় বেরিয়ে পরে। হঠাৎ একটা স্টলের সামনে এসে সবাই অবাক হয়। বিশেষ করে আফসানা ও সন্দীপ। কারণ স্টলের নাম “নকশী কাঁথার খোঁজে”। সেই স্টলের বৃদ্ধ বিক্রেতার সাথে তারা রহস্যে জড়িয়ে পরে। সেই রহ্যসের উদঘাটন নিয়েই এই ছবির গল্প ।

ছবিতে পল্লীকবি জসীমউদ্দীনের চরিত্রে অভিনয় করছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়,রূপাই-এর চরিত্রে আছেন নবাগত রাহুল, সাজুর চরিত্রে অভিনয় করছেন নবাগতা ডালিয়া ঘোষ,রূপইয়ের মায়ের চরিত্রে অভিনয় করছেন পিয়া সেনগুপ্ত,সোমা চক্রবর্তী অভিনয় করছেন সাজুর মায়ের চরিত্রে,রয়েছেন দেবেশ রায়চৌধুরী,বিশেষ একটি গানে ও চরিত্রে রয়েছেন বাংলাদেশের নাজমুল হাসান প্রভাত।

ছবিতে মোট ৬টি গান আছে।সঙ্গীত পরিচালনা করছেন সুরজিৎ চট্টোপাধ্যায় ও নীলাকাশ রায়।চিত্রগ্রহনে রয়েছেন রফিকুল ইসলাম ও সৌরভ ব্যানার্জী।বুধবার ছবির কলাকুশলীদের উপস্থিতিতে ফার্স্ট লুক লঞ্চ হয়ে গেল।বিশেষ অথিতি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন প্রখ্যাত পরিচালক রাজা সেন।

কিছুদিন আগে জসিমউদ্দিনের নিজ জেলা ফরিদুপরে ছবিটির দৃশ্যধারণের কাজ করা হয়। এখন কলকাতায় চলছে ছবিটির সম্পাদনা ও শব্দমিশ্রনের কাজ । এরইমধ্যে  ছবিটির একটি পোস্টারও প্রকাশ করা হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, নতুন বছরের শুরুতে দুই বাংলায় একযোগে মুক্তি পাবে ‘নকশী কাঁথার খোঁজে’ ছবিটি।


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন