বিনোদন

২০১৮ সালে মিডিয়া অঙ্গনের সাত তারকা দম্পতির বিচ্ছেদ!

বিদায়ী বছর ২০১৮ সালে বাংলাদেশের শোবিজ অঙ্গনের অনেক তারকা তাঁদের দাম্পত্য জীবনের ইতি টেনেছেন। নানা ভাঙা-গড়ার মধ্য দিয়ে কেটেছে তাঁদের এ বছরটি। অভিনয় ও সংগীতশিল্পীদের বহুল আলোচিত বিবাহ-বিচ্ছেদ নিয়ে সাজানো হয়েছে এই প্রতিবেদনটি।

শাকিব-অপু 

চলতি বছর ২২ ফেব্রুয়ারি চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাসের সঙ্গে নায়ক শাকিব খানের তালাক কার্যকর হয়। এর আগে, ২০১৭ সালের ২২ নভেম্বর অপু বিশ্বাসকে তালাক নোটিশ পাঠিয়েছিলেন শাকিব খান। তাদের সংসার টিকিয়ে রাখতে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনও সমঝোতা বৈঠকের আয়োজন করেছিল। তাতে কোন লাভ হয়নি। যদিও অপু এগিয়ে এসেছিলেন কিন্তু  শাকিব উপস্থিত ছিলেন না। তাই তাদের এক করা সম্ভাব হয়নি। আইন অনুযায়ী ডিভোর্স লেটার কার্যকর হতে সময় লাগে ৯০ দিন, অর্থাৎ তিন মাস। তালাক কার্যকর হওয়ার পর অপু বিশ্বাসকে বিয়ের দেনমোহর বাবদ সাত লাখ টাকা পরিশোধ করা হয় বলে জানান শাকিব খান।

উল্লেখ্য, ২০০৮ সালের ১৮ই এপ্রিল বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হন ঢাকাই ছবির হিট জুটি শাকিব খান ও অপু বিশ্বাস। ২০১৬ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর জন্ম হয় তাদের সন্তান আব্রাম খান জয়ের।

বাপ্পা মজুমদার-চাঁদনী

চলতি বছর শুরুর দিকে জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পী বাপ্পা মজুমদার ও চাঁদনীর বিবাহ বিচ্ছেদ হয়। তারা দীর্ঘদিন ধরে একসঙ্গে ছিলেন না।

উল্লেখ্য,বাপ্পা মজুমদার এবং অভিনয় ও নৃত্যশিল্পী চাঁদনী ভালোবেসে বিয়ে করেন ২০০৮ সালের ২১ মার্চ। দু’জনে ভিন্ন ভিন্ন ধর্মের হলেও বাগদানের আগেই বাপ্পা ধর্মান্তরিত হয়ে আহমেদ বাপ্পা মজুমদার হন। দুই পরিবারের সম্মতিতেই এই বাগদান সম্পন্ন হয়।

শ্রাবন্তী

চলতি বছর ৭ মে জনপ্রিয় অভিনেত্রী ইপসিতা শবনম শ্রাবন্তীকে তালাকের নোটিশ পাঠায় তার স্বামী মোহাম্মদ খোরশেদ আলম। বগুড়ায় শ্রাবন্তীর বাবার বাসার ঠিকানায় এ নোটিশ পাঠানো হয়। এর আগে, যক্তরাষ্ট্রে থাকাবস্থাতেই স্বামীর পাঠানো তালাক নোটিশের খবর পান শ্রাবন্তী। পরবর্তীতে ২৫ জুন দেশে আসেন এই অভিনেত্রী। স্বামী খোরশেদ আলমের সঙ্গে নানাভাবে যোগাযোগের চেষ্টা করেন শ্রাবন্তী। কিন্তু ব্যর্থ হন। বিষয়টি আদালত পর্যন্ত গড়ায়।

উল্লেখ্য, ২০১০ সালের ২৯ অক্টোবর খোরশেদ আলমের সঙ্গে শ্রাবন্তীর বিয়ে হয়। তাদের সংসারে দুই কন্যা সন্তান রয়েছে।

তাসনুভা তিশা

চলতি বছর ফেব্রুয়ারিতে বিয়ে বিচ্ছেদের তালিকায় যুক্ত হয় তাসনুভা তিশার নাম। তবে ২১ জুন স্বামী ফারজানুল হকের সঙ্গে তাঁর বিচ্ছেদের কথা স্বীকার করেন এই শিল্পী। ওই সময় তিনি জানান, গত ২১ মে ফারজানুল হকের সঙ্গে তাঁর বিবাহবিচ্ছেদের সব আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর তাসনুভা তিশা ভালোবেসে বিয়ে করেন ফারজানুল হককে। তাদের সংসারে একটি পুত্রসন্তান আছে। নাম আনুশ।

নাদিয়া মিম

২০১৬ সালের ২৮ এপ্রিল, বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা সাফায়াত আলীকে বিয়ে করেন লাক্স-চ্যানেল আই সুপারস্টার প্রতিযোগিতার বিজয়ী নাদিয়া মিম। এর দুই বছরের মাথায় চলতি বছর মে মাসে ভেঙে যায় তাদের সংসার। ওই সময় নাদিয়া মিম জানান, যে স্বপ্ন নিয়ে সংসার শুরু করেছিলেন, তা বাস্তব মনে হচ্ছিল না। তাদের মধ্যে একটা শূন্যতা তৈরি হয়। একটা পর্যায়ে দু’জনের মতের অমিলও দেখা দেয়। তাই বাধ্য হয়েই বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নেন তারা।

চৈতি

বছর মাঝামাঝিতে লাক্স সুপারস্টার ইসরাত জাহান চৈতির সংসারে ভাঙ্গনের গুঞ্জন উঠে। তবে সেসময় বিষয়টি অস্বীকার করেন চৈতি। তবে সম্প্রতি তিনি স্বীকার করেন, তারা আলাদা হয়ে গেছেন। চলতি বছর ৮ নভেম্বর সংসার জীবনের ইতি টানেন এই লাক্স সুপারস্টার।

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালের আগষ্টে শাওন রায়কে বিয়ে করেন চৈতি। শাওন একজন থ্রিডি অ্যানিমেটর এবং গ্রাফিক ডিজাইনার।


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন