বিনোদন

ইশিতার হাতে ‘সা রে গা মা পা’র বিজয়ের মুকুট

সা রে গা মা পা ২০১৮ আসরে বিজয় মুকুট পরলেন ইশিতা বিশ্বকর্মা। ১৬ বছরের ইশিতা হারিয়েছেন সাহিল সোলাঙ্কি, তন্ময় চতুর্বেদী, ঐশ্বরিয়া পণ্ডিত, সনু গিল ও আসলাম আবুল মজিদকে। ট্রফির সাথে পুরস্কার হিসেবে ইশিতা ৫ লাখ রুপি ও একটি নতুন গাড়িও পেয়েছেন। প্রথম রানার আপ হয়েছেন তন্ময় এবং দ্বিতীয় রানার আপ হয়েছেন সনু।

মজার ব্যাপার হলো, এই পর্বে ইশিতার মাও তাঁর সঙ্গে প্রতিযোগিতায় লড়েন। ইশিতার মা অবশ্য বেশিদূর এগোতে পারেননি, তবে ইশিতা চ্যাম্পিয়ন হলেন।

যেসব তারকা অভিনেতা এই শোতে নিজেদের সিনেমার প্রচারে গিয়েছিলেন, তাঁরা সবাই ইশিতা বিশ্বকর্মার ভূয়সী প্রশংসা করেন। যখন শাহরুখ খান ইশিতার কণ্ঠে তাঁর সিনেমার ‘রব নে বানা দি জোড়ি’ গানটি শোনেন, অভিভূত হয়ে সিনেমার সংলাপ থেকে উদ্ধৃত করে প্রশংসা করেন। ইশিতার উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ কামনা করে শাহরুখ বলেন, ‘তুঝমে রব দিখতা হ্যায়।’

ছোট থেকেই ইশিতা বিশ্বকর্মা সমাজকর্ম করে আসছেন। বাল্যবিবাহের বিরুদ্ধে সচেতনতা গড়ে তুলছেন তিনি। কঙ্গনা রানাউত ইশিতার ভূয়সী প্রশংসা করেছেন এবং বিজয়ের মুকুট পরিয়ে দিয়েছেন। কঙ্গনার কামনা, সমাজের মঙ্গলের জন্য কাজ চালিয়ে যাবেন ইশিতা।

এমনকি এই শোতে দুবার হাজির হয়েছিলেন হালের সেনসেশন সারা আলি খান। শোতে মা অমৃতা সিংকে ফোনে কল দেন এবং বলেন ইশিতার পারফরম্যান্স দেখতে।

‘সা রে গা মা পা’ ভারতের অন্যতম পুরোনো চলমান গানের রিয়েলিটি শো। ১৯৯৫ সালে এই শো শুরু হয়। এ পর্যন্ত এই শো থেকে বহু সংগীতশিল্পী পেয়েছে বলিউড, যাঁরা পরে বিখ্যাত হয়েছেন। এই শো থেকে আসা আজকের প্রতিষ্ঠিত তারকাদের মধ্যে অন্যতম শ্রেয়া ঘোষাল, কুনাল গাঞ্জাওয়ালা ও শেখর রবজিয়ানি।

এবারের মৌসুমের বিচারক ছিলেন ওয়াজিদ খান, শেখর রবজিয়ানি ও রিচা শর্মা। শুরুতে অবশ্য সোনা মহাপাত্র ছিলেন, তবে পরে তাঁর পরিবর্তে যান রিচা। গেল বছরের অক্টোবরে এই শো শুরু হয়। সঞ্চালক ছিলেন আদিত্য নারায়ণ।


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন