বিনোদন

আগামীকাল ৩৭ হলে মুক্তি পাচ্ছে ‘আব্বাস’

পুরান ঢাকার অনাথ এক ছেলের নাম আব্বাস। বাবা-মা হীন জীবন তার। আজ এখানে কাল ওখানে কেটে যায় তার। যত্ন নেই, স্নেহ-মমতা নেই। নির্ঘুম অনাহারে অনিশ্চিত এক ভবিষ্যতের অপেক্ষায় বেঁচে থাকা তার। হঠাৎ একদিন সে পড়ে যায় ভয়ঙ্কর এক চক্রের হাতে। সেখানে আশ্রয়ে-প্রশ্রয়ে বেড়ে ওঠা আব্বাস এলাকার ত্রাস বনে যায়। মধ্যবিত্ত জীবনের টানাপোড়েন, প্রেম-ভালবাসা, রাজনীতি, সমাজের অবক্ষয় চিত্রসহ বাস্তব জীবনের অংশ তুলে ধরা হয়েছে ছবিতে।

আব্বাস চরিত্রে অভিনয় করেছেন নিরব। মাস্তান আব্বাসের গুরু জয়রাজ। যিনি কমিশনার রহমান ভাইয়ের চরিত্রে অভিনয় করছেন আব্বাস ছবিতে। এলাকার ডন তিনি। আর তার হাত ধরেই রাজধানী ঢাকা শহরে ঠাঁই হয় আব্বাসের। রহমান ভাই কোলেপিঠে করে মানুষ করেন আব্বাসকে। এলাকার ডন বড় ভাই রহমানের ছত্রছায়ায় এক সময় এলাকার ত্রাস হয়ে ওঠেন তিনি। চমৎকার গল্পে বিনোদনে ভরপুর এক সিনেমা ‘আব্বাস’। পরিচালক যত্ন নিয়ে ছবিটি তৈরি করেছেন। এমনই গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে এ্যাকশন-রোমান্টিক ঘরানার চলচ্চিত্র ‘আব্বাস’।

আগামীকাল শুক্রবার মুক্তি পাচ্ছে সাইফ চন্দন পরিচালিত অ্যাকশন-রোমান্টিক ঘরানার চলচ্চিত্র ‘আব্বাস’। ৩৭টি সিনেমা হলে মুক্তি পাচ্ছে নিরব-সাবা অভিনীতি এই ছবিটি। বিষয়টি  নিশ্চিত করেছেন ছবির নায়ক নিরব ও পরিচালক । হল গুলো হচ্ছে – ঢাকার ভিতর- স্টার সিনেপ্লেক্স (বসুন্ধরা), ব্লক বাস্টার সিনেমাস (যমুনা), মধুমিতা, বলাকা, রাজমনি, সেনা, শাহীন, পুনম, এশিয়া, গীত, মুক্তি ও পূরবী।

ঢাকার বাইরে- চম্পাকলি (টংগী), বর্ষা (জয়দেবপুর), রানিমহল (ডেমরা), গুলশান (নারায়নগঞ্জ), নিউ গুলশান (জিঞ্জিরা), দর্শন (ভৈরব), শাপলা (রংপুর), মানসী (কিশোরগঞ্জ), মাধবী(মধু পুর), রজনীগন্ধা (চালা), রুপকথা (শেরপুর), আলমাস (চট্টগ্রাম), অভিরুচি (বরিশাল), পুরবী (ময়মনসিংহ ), রাজিয়া (নাগরপুর), মালঞ্চ (টাঙ্গাইল), শংখ (খুলনা), লিভার্টি (খুলনা), বনলতা (ফরিদপুর), রাজ (কুলিয়ারচর), বিজিবি (সিলেট), হ্যাপী (লক্ষীপুর), মুন (হোমনা), মেহেরপুর টকিজ (মেহেরপুর) ও মোহন (হবিগঞ্জ)।

চন্দন বলেন, যাঁরা নিয়মিত সিনেমা হলে গিয়ে ছবি দেখেন, তাঁরা সিনেমার মূল দর্শক। সেই দর্শক যে ধরনের চলচ্চিত্র দেখতে চান, আমি সেই ধরনটা ‘আব্বাস’ চলচ্চিত্রে দেওয়ার চেষ্টা করেছি। ছবির গল্প মেকিং সবার ভালো লাগবে বলে আমি মনে করি। তাই বলবো সবাই হলে আসুন আমার ছবি এবং আপনাদের ছবি দেখুন।

নিরব বলেন, ছবির গল্প একবারেই মৌলিক। অন্য কোনো ছবির সঙ্গে এর মিল পাওয়া যাবে না। আমরা প্রায়ই ছবির গল্প নকল নিয়ে কথা বলি। সেসব কারণে কিছু সমালোচক এ ছবির গল্পকেও নকল বলার চেষ্টা করছেন। আমি একজন অভিনয়শিল্পী হিসেবে ছবিটির গল্প নিয়ে নিশ্চয়তা দিতে পারি এ ছবির গল্প নকল নয়।

অন্যদিকে প্রায় এক বছর পর নিরবের নতুন একটি ছবি মুক্তি পাচ্ছে। এ নিয়েও তিনি অনেকটাই উচ্ছ্বসিত। তাই নিরব বলেন, আমার শুভাকাঙ্ক্ষী ও দর্শকরা এ ছবিটির জন্য অপেক্ষায় আছেন। কারণ দীর্ঘসময় ধরে আমার অভিনীত ছবি মুক্তি পাচ্ছে না। আমিও প্রতিক্ষায় ছিলাম কবে আসবে সেই শুভক্ষণ। অপেক্ষার অবসান হচ্ছে।

নিরব সাবা ছাড়া আরো আরও আছেন অ্যালেকজান্ডার বো, ডন, সমাপ্তি মাসুক, সূচনা আজাদ, তাসনিয়া, নুসরাত পাপিয়া, শিমুল খানসহ অনেকে। প্রথমবারের মতো ছবিটি প্রযোজনা করেছে ঢাকা ফিল্মস অ্যান্ড এন্টারটেইনমেন্ট।


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন