বিনোদন

দিন যাচ্ছে দর্শক টানছে ‘আব্বাস’

শুক্রবার (৫ জুলাই) মুক্তি পেয়েছে ৩৭টি সিনেমা হলে ‘আব্বাস’। সাইফ চন্দন পরিচালিত সিনেমার নাম চরিত্রে অভিনয় করেছেন চিত্রনায়ক নিরব হোসেন। মুক্তির পর ‘আব্বাস’কেমন চলছে?

দর্শকরা নিরবকে কতটা গ্রহণ করেছে? এমন প্রশ্নে রোববার দেশের অন্যতম ঐতিহ্যবাহী সিনেমা হল মধুমিতার ব্যবস্থাপক রেজাউল করিম বলেন, ‘আব্বাস’ সিনেমাটা মোটামুটি ভালো চলছে। সেল রিপোর্ট ভালো। আসলে সিনেমার বাজারই তো মন্দা। এ বছর যে ছবিগুলো মুক্তি পেয়ে মধুমিতায় চলছে তার মধ্যে ‘আব্বাস’ ভালো চলছে।

রাজধানীর আরেক দর্শকপ্রিয় সিনেমা হল বলাকার ব্যবস্থাপক শাহীন বলেন, কোন সিনেমা এক সপ্তাহের বেশি চালাতে পারিনা। তাহলে বুঝুন ব্যবসার কী অবস্থা। তবে ‘আব্বাস’-এর অবস্থা মোটামুটি ভালো। শুক্রবার খেলার জন্য মানুষ কম হলেও শনিবার তার ডাবল ও রবিবার তার ডাবল দর্শক হয়েছে। পুরো সপ্তাহ যদি এই ধারা ঠিক থাকে, তাহলেই আমরা খুশি।

এদিকে রাজধানীর আরেক হল পুনম সেখানে ম্যানেজারের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, শুক্রবার প্রথম দুটি শোতে দর্শক উপস্থিতি কম ছিল। ৩টার শোতে ডিসি ফুল গিয়েছে।তারপর শনিবার ও রবিবার শো গুলো ছিলো হাউজ ফুল।

নিউ গুলশানের ম্যানেজার বলেন, আব্বাস সিনেমার গল্প ভালো দর্শক ও টানছে ভালো। আমাদের এখানে প্রথম দিন হতে হাউজফুল যাচ্ছে ছবিটি । আমি মনে করছি ছবিটি আমাদের এখানে পুরো সপ্তাহ হাউজফুল যাবে।

চম্পাকলি হলের মালিক সালাহ উদ্দিন সরকার বলেন, প্রথম দিন দর্শক ছিল মোটামুটি। তবে দ্বিতীয় ও তৃতীয় দিনে এসে টিকিট বিক্রি শো হাউসফুল ছিল।

দর্শকদের মতামত কি তা জানতে অনেকের সাথে কথা হয়, তারা বলেন অনেক সুন্দর একটি ছবি। গল্প সুন্দর, লোকেশন গুলো অনেক সুন্দর। নিরব আর আলেক ভাইয়ের অভিনয় ছিলো দারুন। এটি পরিবারসহ দেখার মতো একটি ছবি।

এদিকে ঢাকার রাজমনি, পূরবী, ) জয়দেবপুরে বর্ষা, সিলেটের বিজিবি ও রংপুরের শাপলা মতো বড় বড় সিনেমা হলে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, শুক্রবারের চেয়ে শনিবার ও রবিবার আব্বাস দেখতে প্রচুর দর্শক আসে। এ বছর যে কটি ছবি মুক্তি পেয়েছে সে তুলনায় আব্বাস ছবি বেশি দর্শক সমাগম হয়েছে।

ঢাকা ফিল্মস অ্যান্ড এন্টারটেইনমেন্ট প্রযোজিত সিনেমাটিতে নিরবের বিপরীতে অভিনয় করেছেন অভিনেত্রী সোহানা সাবা। তাদের পাশাপাশি আরও রয়েছেন অ্যালেকজান্ডার বো, ডন, ইলোরা গওহর, সমাপ্তি মাসুক, জয় রাজ সূচনা আজাদ, তাসনিয়া,এইস কে স্বাধীন, নুসরাত পাপিয়া, শিমুল খান প্রমুখ।

আব্বাস মুক্তি পেয়েছে যে হলে

ঢাকার ভিতর : স্টার সিনেপ্লেক্স (বসুন্ধরা), ব্লকবাস্টার (যমুনা), মধুমিতা, বলাকা, রাজমনি, সেনা, শাহীন, পুনম, এশিয়া, গীত, মুক্তি, পূরবী।

ঢাকার বাইরে: চম্পাকলি (টংগী) বর্ষা (জয়দেবপুর), রানিমহল (ডেমরা), গুলশান (নারায়ণগঞ্জ), নিউ গুলশান (জিঞ্জিরা), দর্শন (ভৈরব), শাপলা (রংপুর), মানসী (কিশোরগঞ্জ) মাধবী, (মধুপুর) রজনীগন্ধা (চালা), রুপকথা (শেরপুর), আলমাস (চট্টগ্রাম) অভিরুচি (বরিশাল), পুরবী (ময়মনসিংহ ), রাজিয়া (নাগরপুর), মালঞ্চ (টাঙ্গাইল), শঙ্খ (খুলনা) লিভার্টি (খুলনা), বনলতা (ফরিদপুর) রাজ (কুলিয়ারচর) বিজিবি (সিলেট), হ্যাপি (লক্ষ্মীপুর) মুন (হোমনা) মেহেরপুর তকিজ (মেহেরপুর) ও মহন (হবিগঞ্জ)।


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন