বিনোদন

নানা ঝামেলার কারণে গ্রামে চলে গেলেন নিশোর ভক্ত !

প্রিয় তারকার জন্য ভক্তদের ভালোবাসার সীমা থাকে না। নানা রকম পাগলামি মানুষ করে তাদের প্রিয় শিল্পীর জন্য। তেমনই জনপ্রিয় অভিনেতা আফরান নিশোরও রয়েছে অগণিত ভক্ত। তাদের মধ্যে অনেকেই নিশোর জন্য বিভিন্ন সময় বিচিত্র সব পাগলামি করেছে। এখনও করে। এবার তার জন্য ঘর ছেড়েছেন তারই এক অন্ধ ভক্ত। নাম তুহিন। প্রিয় শিল্পীকে কাছ থেকে দেখতে ও তাকে একবার ছুঁয়ে না দেখা পর্যন্ত বাড়ি ফিরবেন না বলেও জানিয়েছেন এই ভক্ত। নিশোকে উদ্দেশ্য করে তুহিনের এমনই এক চিঠি এখন ঘুরে বেড়াচ্ছে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতে।

চিঠিতে তুহিন লিখেছেন- তিনি টাঙ্গাইল জেলার দেলদুয়ার থানাধীন নাটিয়াপাড়ায় থাকেন। নিশোকে এক নজর ও তাকে ছুঁয়ে দেখতে ঢাকায় এসেছেন তিনি। অচেনা এই শহরে এসে তিনি বেশ বিপাকে পড়েন। শহরে পরিচিত কেউ নেই তার, থাকছেন রাস্তায়। খাওয়া-দাওয়ারও বেশ অসুবিধে হচ্ছে। সঙ্গে তিনি তার ফোন নম্বরও দিয়েছেন।

তুহিনের সঙ্গে এবিষয়ে যোগাযোগ হলে তিনি আমাদের জানান, আমি নিশো ভাইয়ের অন্ধ ভক্ত। আমি সব সময় তাকে অনুসরন করি। আমার অনেক ইচ্ছে ছিলো তাকে একবার কাছ থেকে দেখার এবং তাকে ছুঁয়ে দেখার। সেই ইচ্ছে নিয়েই আমি ঢাকায় গিয়েছিলাম। ঢাকাতে আমার কেউ নেই। নিজের ইচ্ছে প্রকাশ করে আমি পাঁচশ’ পোস্টার করেছিলাম। পোস্টারগুলো উত্তরা ও তার আশপাশে, যেখানে শুটিং হয় সেসব স্থানের দেওয়ালে লাগিয়েছি। যাতে একবার বিষয়টি নিশো ভাইয়ের নজরে আসে বা চোখে পড়ে।

বিষয়টি আমলে নিয়ে তার সাথে কথা হলে তিনি বলেন, আমি এখন গ্রামে চলে এসেছি। ইচ্ছে ছিল, তার দেখা না পেয়ে গ্রামে যাব না। কিন্তু আমি ঢাকায় থাকতে পারিনি, নানা ঝামেলার কারণে। পোস্টার লাগাতে গিয়ে মারধরের শিকার হয়েছি। এরপর কেউ আমাকে বাসা ভাড়া দেয়নি। না খেয়ে সারা দিন শহরে কাটিয়েছি। অবশেষে কোনো কুলকিনারা না পেয়ে রাতে গ্রামে চলে এসেছি।

এ বিষয়ে আফরান নিশোর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তাকে ফোনে পাওয়া যায়নি। তবে জানা গেছে, ভক্ত তুহিনের বিষয়টি  নিশো জেনেছেন এবং অবসর পেলে শূটিং ঝামেলা একটু কমলে তিনি তুহিনের সঙ্গে দেখাও করবেন বলে জানিয়েছেন। তার ফোন নম্বরটি নিজের কাছে রেখেছেন জনপ্রিয় এই অভিনেতা বলে জানাগেছে।

 


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন