বিনোদন

সাকিবের জন্য সাত সমুদ্র পাড়ি দিয়ে ঢাকায় স্মৃতি!

বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের জন্য সাত সমুদ্র পাড়ি দিয়ে ঢাকায় এলেন ৯০ দশকের অন্যতম মডেল যুক্তরাজ্য প্রবাসী স্মৃতি ফামি। গত ৮ জানুয়ারি ঢাকায় এসে সাকিবের সঙ্গে প্রয়োজনীয় কাজ সেরে গত (১৪ জানুয়ারি) রাতেই যুক্তরাজ্যগামী বিমানের ফ্লাইটে চলে যান তিনি। মূলত অমিতাভ রেজার গ্ল্যাক্সোস ডি’র বিজ্ঞাপনের জন্য তিনি আসেন।

স্মৃতি ফামি জানান, গেল ৮ জানুয়ারি কাজটির জন্য অমিতাভ রেজা ভাই হুট করেই আমাকে ডাকেন। তার ডাকে সারা দিয়েই হুট করে আসি। মিটিং আর প্রস্তুতি শেষে গেল ১০ ও ১১ জানুয়ারি টানা শুটিং করি। আজ রাতেই আবার যুক্তরাজ্য ফিরে যাবো।

স্মৃতি বলেন, ‘অমিতাভ ভাই আর সাকিব আল হাসানের ব্যাপারে কি বলব। তাদের সম্পর্কে সকলেই জানেন। দুজনই নিজ নিজ অঙ্গনে সেরা। আমার কাজটি করে ভালো লেগেছে। এরপর আরও ভালো লাগছে, বহুকাল পর মনে হলো, এই শহর এখনও আমায় মনে রেখেছে!

বিজ্ঞাপনচিত্রে স্মৃতি ফামিকে দেখা যাবে  সুপার ওমেনের চরিত্রে। তার ভাষায়, এখানে আমাকে দেখা যাবে ঘরে-বাইরে সারাক্ষণ আমি ব্যস্ত। সুপার ওমেনের মতো সব কাজ সেরে ফেলছি। আমি ক্ল্যান্ত। এমনই এক সময়ে সামনে হাজির হন সাকিব আল হাসান। তার হাতে এক গ্লাস গ্ল্যাক্সোস ডি। গল্পটা এমনই।

জানা গেছে, আসছে মার্চ মাস থেকে এই বিজ্ঞাপনচিত্রটি সম্প্রচার হবে দেশের সবক‘টি টিভি চ্যানেল ও অনলাইন প্ল্যাটফর্মে।

মূলত, স্মৃতি ফামির শুরুটা হয় ১৯৯২ সালে। এপি কোল্ড ক্রিমের একটি বিজ্ঞাপনচিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে। এরপর অসংখ্য জনপ্রিয় বিজ্ঞাপনের মডেল হয়েছেন দশকজুড়ে। সে সময় কোমল পানীয় কোকাকোলার ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবেও কাজ করেন স্মৃতি। যুক্তরাজ্যে পাড়ি জমানোর আগে ১৯৯৯ সালে শেষ কাজটি করেন ফুজিয়ান ফ্রিজের।

মডেল স্মৃতি ফামির পর্দার গল্পের প্রথম পর্বটা মূলত সেখানেই শেষ হয়। পড়াশোনা, সংসার আর শিক্ষকতা নিয়েই প্রবাস জীবন গুছিয়ে নিয়েছেন নিজের মতো করে। কিন্তু না। টানা ২০ বছর পর তিনি আবারও বিজ্ঞাপনের ক্যামেরার সামনে দাঁড়ালেন স্মৃতি।


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন