খেলা

মেসি-নেইমারের প্রশংসায় সুয়ারেজ!

 স্পোর্টস ডেস্ক | ‘মেসিকে ছাড়া ফুটবল নিরস’ এমন মন্তব্য আর্জেন্টাইন ফুটবল জাদুকরের ক্লাব বার্সেলোনার সতীর্থ উরুগুয়ের তারকা স্ট্রাইকার লুইস সুয়ারেজের। সেটিও আবার রাশিয়া বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে মেসি বাহিনীর কাছে হেরে শীর্ষস্থান হারানোর পর। মেসি ছাড়াও ব্রাজিল সেনসেশন নেইমারের প্রশংসাও করেন সুয়ারেজ।

ঊরুতে ব্যথা নিয়ে বিশ্বকাপ বাছাইয়ে উরুগুয়ের বিপক্ষে খেলতে নামেন বার্সা তারকা মেসি। সেটি ছিল তার অবসর ভেঙে আবারো জাতীয় দলের হয়ে ফেরার ম্যাচ। চোট নিয়েই দেশের জার্সি গায়ে পুরো সময় খেলেন মেসি। এক পর্যায়ে মেসির উত্তরসূরি ভাবা স্ট্রাইকার পাওলো দিবালা দুটি হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়লে দশজনের দলে পরিণত হয় মেসির দলটি। তারপরও মেসির দেওয়া একমাত্র গোলেই জয় পায় আর্জেন্টিনা। পয়েন্ট টেবিলে শীর্ষে থাকা সুয়ারেজের উরুগুয়ে পয়েন্ট হারানোর পাশাপাশি টেবিলের নিচের দিকে নেমে যায়।

আর্জেন্টিনা সমর্থকদের ভালোবাসার প্রতিদান দিয়েআবারো জাতীয় দলে ফেরা মেসি প্রসঙ্গে সুয়ারেজ জানান, ‘আমি সত্যিই খুশি যে মেসি আবারো দেশের জার্সি গায়ে মাঠে নেমেছে। আর আমার খুশির কারণ সে আমার ভালো বন্ধু। আমি জানি আর্জেন্টিনা তার কাছ থেকে কি চায়। কিন্তু, তার থেকেও ভালো জানি ফুটবল মেসির থেকে কি চায়।’

পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী মেসি প্রসঙ্গে সুয়ারেজ আরও যোগ করেন, ‘এ মুহূর্তে বিশ্বকাপের আসর আর কোপা আমেরিকার আসর মেসির মতো ফুটবলার ছাড়া নিরস। বিশ্ব ফুটবলের মেগা ইভেন্ট গুলো মেসির মতো বিশ্বসেরা ফুটবলার ছাড়া জমে না। আর্জেন্টিনার হয়ে মেসির ফেরাটা ফুটবলের জন্যই ভালো হয়েছে।

এদিকে, লাতিন আমেরিকা অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে নড়বড়ে অবস্থান নিয়ে ইকুয়েডরের বিপক্ষে মাঠে নেমে একমাত্র দল হিসেবে সবকটি বিশ্বকাপ খেলা ব্রাজিল জিতেছে ৩-০ গোলে। বার্সার আরেক তারকা স্ট্রাইকার নেইমার আর অভিষিক্ত গ্যাব্রিয়াল জেসুসের গোলে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। ম্যাচে একটি গোল করেন নেইমার। বাকি দুটি গোল আসে জেসুসের কল্যানে। তার আগে ফুটবলের ইতিহাসে ব্রাজিলকে প্রথমবারের মতো শিরোপা জেতান নেইমার। এরপর তিনি ক্লাব থেকে কিছুটা লম্বা সময় ছুটি পান।

অলিম্পিক হিরো নেইমার প্রসঙ্গে সুয়ারেজ জানান, ‘আন্তর্জাতিক বিরতির পর বার্সায় আমরা নেইমারকে পাওয়ার অপেক্ষায় রয়েছি। মাঠে আমাদের তিনজনের (মেসি, নেইমার, সুয়ারেজ) বোঝাপড়াটা দারুণ হয়। চলতি মৌসুমে আমরা তিনজন আরও শীর্ষে উঠতে পারব বলে আমি বিশ্বাস করি। আমরা শুধুমাত্র ক্লাব সতীর্থই না, আমরা ভালো বন্ধু। আর এটাই আমাদের মাঠে ও মাঠের বাইরে সাহায্য করে।’

উরুগুয়েকে হারিয়ে সপ্তম রাউন্ড শেষে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে উঠেছে আর্জেন্টিনা। সমান ম্যাচ শেষে উরুগুয়ে, কলম্বিয়া, ইকুয়েডরের অর্জন ১৩ পয়েন্ট। এদিকে, ব্রাজিল ও প্যারাগুয়ের পয়েন্ট ১২।

এই অঞ্চল থেকে শীর্ষ চারটি দল সরাসরি সুযোগ পাবে বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে। পঞ্চম দলটিকে প্লে-অফ খেলে উঠতে হবে মূল পর্বে।


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। DeshReport.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো সংবাদ...

মন্তব্য করুন